VoiceBharat News 309f8dc59c570eb8080a8326c7128e04 original

ধর্মীয় হিংসার ঘটনায় কড়া হাতে রাশ ধরেছে বাংলাদেশ সরকার। দুর্গাপূজোর মতো একটি আনন্দ উৎসবকে কেন্দ্র করে হিংসার বাতাবরণ তৈরির তীব্র সমালোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, “এই ঘটনায় শুধু অন্য ধর্মকে অসম্মান নয়, নিজ ধর্মকেও হেয় করা হয়েছে”। পাশাপাশি তিনি সকল মানুষের প্রতি আবেদন জানান– “অশান্তির ঘটনায় কেউ যেন আইন নিজের হাতে তুলে না নেন”। শেখ হাসিনা সরকারের তরফ থেকে পূর্ণ সুবিচারের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

VoiceBharat News images 86 2
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


কুমিল্লার দুর্গাপ্রতিমার কাছে হনুমান মূর্তির পায়ে ‘কোরান’ রাখা এবং সেই ছবি ঘিরে অশান্তির সূত্রপাত হয়। ‘কোরানের অবমাননা’-র সূত্র ধরে শুরু হয় প্রতিমা ভাঙচুর, রংপুর সহ একাধিক জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে হিংসার আগুন। ইসকন মন্দিরেও হামলা হয়েছে বলে খবরে প্রকাশিত। বাংলাদেশের জাতীয় পরিধি ছাপিয়ে এপার বাংলা ‘ভারতেও’ সেই অশান্তির প্রভাব পড়েছে। কঠোর ‘হিন্দুত্ববাদী’- রা ধর্মরক্ষার দাবিতে মিছিলে নেমে প্রতিবাদে মেতে ওঠেন। ধর্মীয় হিংসাকে রাজনৈতিক স্তরেও ব্যবহারের আশঙ্কা তীব্র হচ্ছে।

VoiceBharat News mcms
ভাঙচুর সেইসব প্রতিমা ও বিতর্কিত ছবি


বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোড়া থেকেই পরধর্মসহিষ্ণুতার পক্ষেই বলে আসছেন। এপ্রসঙ্গে নিজের পিতা ‘বঙ্গবন্ধু’ শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিও উচ্চারণ করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। এখানে সব ধর্মের মানুষ তাঁর ধর্ম পালন করবেন স্বাধীনভাবে। আমাদের সংবিধানেও সেই নির্দেশই দেওয়া হয়েছে”।

VoiceBharat News IMG 20211021 112855
রংপুরে হিংসার আগুন


প্রধানমন্ত্রী আশ্বাস দেওয়ার পরেও অশান্তি থামেনি। সর্বস্তর থেকে কঠোর বিরোধিতার দাবি উঠতে থাকে ক্রমাগত। অপরদিকে বাংলাদেশ সহ ভারতেও বিভিন্ন জায়গায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পক্ষে সভা-সমাবেশ হয়ে চলেছে।


সাম্প্রদায়িক হিংসা দমনে এবার কঠোর পদক্ষেপই গ্রহণ করল বাংলাদেশ সরকার ও প্রসাশনিক মহল। গত বুধবার ঢাকায় আয়োজিত এক শান্তি সমাবেশে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বার্তা দেন –“দেশে ধর্মের নাম করে যারা সাম্প্রদায়িক হিংসা সৃষ্টি করছে তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে”। পাশাপাশি বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ ‘৭১-এর স্মৃতিকথা মনে করিয়ে বলেছেন, “আমাদের দেশের স্বাধীনতার জন্য মুসলমান-হিন্দু একসাথে যুদ্ধ করেছে। এই দেশ সবার”।

একই বার্তা দিয়েছেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহিম, তিনি বলেন, “সকল ধর্ম তাদের নিজ নিজ উৎসব সুষ্ঠুভাবে পালন করবে এটাই কাম্য। আমরা সকলেই আপনজন। এখানে সংখ্যালঘুদের আলাদা করে দেখার কোনো কারণ নেই”।


বাংলাদেশ হিংসার ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশের তরফ থেকে আজ যথাসময়ে সাংবাদিক বৈঠক করে সমস্ত তথ্য প্রকাশ করা হবে বলেই জানানো হয়েছে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com