আমাদের Telegram এ ফলো করুন সবার আগে সর্বশেষ আপডেট পান Click Here

Google News এ ফলো করুন Click Here

afghanistan

আফগানরস্থানে বিমানের টিকিট পাওয়া উপায় বিয়ে!

Economy Features International

প্রায় ২০বছর পর তালিবানি শাসন কায়েম হয়েছে আফগানস্থানে। যার ফল স্বরূপ দেশ ছেড়ে পালাত বাধ‍্য হচ্ছে আফগান মহিলারা। মার্কিন বিমানে উঠতে পারলেই মুক্তি এই নরক যন্ত্রনা থেকে ।তাই আফগান মহিলারা বিমানে ওঠার টিকিট পাওয়া জন‍্য অচেনা মার্কিনিদের গলায়  মালা দিচ্ছে। আফগান পরিবার তাদের নিজেদের মেয়েদের বাঁচাতে বিমানবন্দরে বাইরে মরিয়া হয়ে পাত্রের খোঁজে চলেছে।বিদেশী  মার্কিন নাগরিকদের হাতে বিয়ের জন‍্য নির্দ্ধিধায়  কন্যা সন্তানদের তুলে দিচ্ছে।

আমেরিকার এক সংবাদমাধ্যমে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। তালিবানি শাসনে মহিলাদের উপর ভয়াবহতা অত্যাচারের  ঘটনায় সামনে আসছে। তালিবানের বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে যখন মার্কিন প্রশাসন, সেনা ও তাদের দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে  বিমান পাঠাচ্ছিল সেগুলি ছিল আফগান পরিবারগুলোর কাছে তাঁদের কন‍্যা সন্তানদের  বাঁচানোর একমাত্র উপায়। তাই শেষ কয়েকদিনে বিমানবন্দরের বাইরে ভিড়টা ছিল চোখে পড়ার মত। 

তালিবানি ফতোয়া ও অত্যাচারের হাত থেকে বাঁচাতে এমন পথই বেছে নিতে হয়েছিল আফগান পরিবার গুলোকে।  সূত্রের খবর ২০বছর ধরে মার্কিন প্রশাসনের জন্য দোভাষীর কাজ করেছেন  যারা বা  মার্কিন সেনাকে সাহায্য করেছেন এমন আফগানবাসীদের মধ্যে থেকে কিছু আফগান নাগরিকদের আশ্রয় দিয়েছে আমেরিকা। এমন লোকর সঙ্গে ঘরের মেয়েকে মিথ্যে বিয়ে দিতে প্রচুর টাকা পণও দিতে রাজি আফগান মহিলাদের পরিবার। বিয়ে একমাত্র বাঁচার শ্রেষ্ট উপায় বলে  আফগান তরুণীরা অনিশচয়তাকে সঙ্গে নিয়ে মার্কিন মুলুকে পাড়ি দিয়েছে ।

এমন তথ‍্য  সামনে আসতেই চিন্তিত আফগান প্রশাসন।পূর্বেও  নবজাতক শিশুদের  মার্কিন সেনাদের হাতে তুলে দেওয়ার খবর জানা গিয়েছিল। তালিবানি সরকার বোরখা পরা ও মেয়েদের জন্য একাধিক ফতোয়া জারি করেছে।১৫ অগাস্ট  তালিবানি রাজ শুরু হতে ফের  আতঙ্ক নেমে এসেছে আফগানস্থানে। আগামী শনিবার ঘোষিত হতে চলেছে আফগানিস্তানের নয়া তালিবানি সরকার।  সূত্র মারফত জানা গিয়েছে নতুন সরকরারের মন্ত্রীসভায় থাকছে ২৫ জন মন্ত্রী এবং ১২ মুসলিম স্কলারদের সঙ্গে নিয়েএকটি পরামর্শ পরিষদ।এও জানা যাচ্ছে যে নতুন সরকারে বিশেষ গুরুত্ব পাচ্ছে আইন ব্যবস্থা, অন্তর্বর্তী সুরক্ষা, প্রতিরক্ষা, বিদেশমন্ত্রক, অর্থ ও তথ্যমন্ত্রকে গরুত্ব দিতে বলা হয়েছে। জুম্মাবারের নমাজ পড়ে ঘোষণা হতে চলেছে নতুন  তালিবানি সরকার। ইতিমধ্যেই  কাবুলে নতুন সরকার প্রধানের নাম দিয়ে হোর্ডিং দেখা গিয়েছে। এমনই জানা যাচ্ছে বর্তমানে আফগানস্থানে নতুন তালিবানি সরকার ঘোষণার আগে প্রস্তুতি  এখন তুঙ্গে।