VoiceBharat News IMG 20211009 011355

এ যেন সত্যিই এক চমৎকার! যে মৃত্যু ছিল নিশ্চিত, গর্ভের মধ্যেই তাকে অভিনব পদ্ধতিতে বাঁচালেন চিকিৎসকরা। কলকাতারই অ্যাপোলো  হাসপাতালে এই ঘটনা ঘটল,যা গোটা পশ্চিমবঙ্গ তো বটেই গোটা পূর্ব ভারতেও আগে কখনও ঘটেনি।

বেশি বয়সে সন্তান ধারণের কিছু জটিলতা থাকে। এক্ষেত্রেও ছিল তাই। প্রসূতি মায়ের গর্ভে ছিল যমজ সন্তান। কিন্তু রক্তপ্রবাহ সঠিকভাবে না হওয়ার ফলে দুই সন্তানের একটি ছিল অতি পুষ্ট আর অন্যটি ছিল অপুষ্টি সম্পন্ন।

১৬ সপ্তাহের মাথায় এই অপুষ্ট শিশুটির ক্ষেত্রে বেশ সমস্যা দেখা দেয় এবং পরীক্ষা করে চিকিৎসকরা নিশ্চিত হন যে, অপরিপুষ্ট শিশুটিকে বাঁচানো সম্ভব নয়। কিন্তু এক্ষেত্রে মৃত্যু হলে দুজনেরই হত। প্রথমটির মৃত্যুর ২ দিনের মধ্যে মারা যেত আরেকটিও। কেননা এক্ষেত্রে ‘প্লাসেন্টা’ ছিল একটি।
প্লাসেন্টা অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ যেটি গর্ভাবস্থায় মহিলার জরায়ুতে শিশুকে অক্সিজেন ও পুষ্টি সরবরাহ করে থাকে, এবং শিশুর রক্ত পরিশোধনে সাহায্য করে। গর্ভবতী মায়ের জরায়ুর দেয়ালের সাথে শিশুর নাভিকে যুক্ত রাখে এই প্লাসেন্টা।

VoiceBharat News IMG 20211009 011425


অ্যাপোলো হাসপালের এই যমজ সন্তান সম্ভাবনার ক্ষেত্রে প্লাসেন্টা একটিই হওয়ায় দুটি শিশুর ধমনী যুক্ত ছিল একইসাথে, যাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় মনো-করিয়ানিক বলা হয়। যার ফলে একজনের মৃত্যুতে অন্যজনের মৃত্যু ছিল অবশ্যম্ভাবী।


এই যখন অবস্থা, তখন অ্যাপোলোর সার্জেন টিম একটি মিরাকেল করে দেখালেন। পরিস্থিতি বুঝে তৎক্ষণাৎ তারা সিদ্ধান্ত নেন একজনকে অন্তত বাঁচাতেই হবে, এবং অভিনব পদ্ধতিতে সেটি করে দেখাতে সফল হন। এই পদ্ধতিকে চিকিৎসকরা বলছেন ‘ইন্টারস্টিশিয়াল ডায়োড লেসার থেরাপি ‘।


আল্ট্রাসাউন্ড নির্দেশক প্রক্রিয়ায় একটি অতিসূক্ষ্ম সূচ প্রসূতি মায়ের গর্ভে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়, তার মধ্যে দিয়ে বেরিয়ে আসে কিছু লেসার রশ্মি, যার দ্বারা ওই অপুষ্ট শিশুটির মৃত্যু ঘটায় তাড়াতাড়ি। এই আল্ট্রা সাউন্ড মেথডের সাহায্যে দুই শিশুর সাথে যুক্ত ধমনী কেটে আলাদা হয়ে যায়ওয়ার ফলে পরিপুষ্ট সুস্থ শিশুটির বেড়ে উঠতে আর কোনো বাধা থাকেনা।

VoiceBharat News IMG 20211009 015845


একে একরকম নতুন জন্মলাভই বলা যায়, যা ভূমিষ্ঠ হবার আগেই সন্তানটির ক্ষেত্রে ঘটালেন চিকিৎসকরা। অ্যাপোলোর ফিটাল মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ড. কাঞ্চন মুখার্জী নিজে হাতে এই লেজার থেরাপি করেছেন।
কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালের এই থেরাপি আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের বহমান ধারাকে আরও সমৃদ্ধ করে তুলল।



By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com