VoiceBharat News 1640694153 mamata gangasagar

গঙ্গাসাগরের মেলায় দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের একচোখা মনোভাব নিয়েই অভিযোগ তুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কুম্ভমেলা কেন্দ্রের আর্থিক সাহায্য পেলেও গঙ্গাসাগরের জন্য কোনও বরাদ্দ নেই। এই বঞ্চনার বিরদ্ধে দাঁড়িয়েই মমতা প্রশ্ন রেখেছেন, “কুম্ভমেলা সুয়োরানী, গঙ্গাসাগর কি তাহলে দুয়োরানী?”

VoiceBharat News IMG 20211228 192222


তিনদিনের গঙ্গাসাগর মেলা সফরের উদ্দেশ্যে মঙ্গলবারই পৌঁছে গিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন বিকেলে প্রথমেই তিনি কপিলমুনির আশ্রমে যান। সেখানেই মন্দির প্রদক্ষিণ করে ঘুরে দেখে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মমতা বলেন,”কুম্ভমেলায় সব টাকা তো ভারত সরকার দেয়।এখানে কোনও টাকা দেয়না। কুম্ভমেলা সুয়োরানী হলে গঙ্গাসাগর কি দুয়োরানী? আমাদের কাজ আমরাই করে নেব। একটু সময় লাগবে।”

VoiceBharat News IMG 20211228 200956
গঙ্গাসাগর মেলার লোকায়ত ঐতিহ্য স্মরণ করিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরো বলেন,”বিশ্বের অন্যতম সেরা মেলা এই গঙ্গাসাগর মেলা। বিশ্বের আর কোথাও এমন মেলা হয়না। প্রত্যেক বছর ২০ থেকে ৩০ লক্ষ মানুষ এখানে আসেন আম্ফান সহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির পরেও ঘুরে দাঁড়িয়েছে গঙ্গাসাগর। সব তীর্থ বারবার , গঙ্গাসাগর একবার। কিন্তু এখানে একবার এলে মানুষ বারবারই আসতে চান। এখানে আগে থাকার ব্যবস্থা ছিলনা। এখন সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে।”

গঙ্গাসাগর মেলার উন্নতিকল্পে রাজ্যসরকারের উদ্যোগ উল্লেখ করে কেন্দ্রের অসহযোগ মনে করিয়ে তিনি জানান, “আমি প্রধানমন্ত্রীকে অনেকবার চিঠি দিয়েছি গঙ্গাসাগর যেন জাতীয় মেলা হয়। আমি সেই চিঠির উত্তরের অপেক্ষায় রয়েছি। কুম্ভমেলায় সব খরচ কেন্দ্র দেয়, এখানে একটা পয়সা দেয়না!”

VoiceBharat News 95ad93ce 2d5e 4c84 9f29 7286e5a52620

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেলার দর্শনার্থীদের বারবার কোভিড বিধি মেনে মেলায় আসবার পরামর্শ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ৮ থেকে ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে গঙ্গাসাগর মেলা। এখন তারই প্রস্তুতিপর্বের শেষমূহুর্তের কাজ চলছে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com