আমাদের Telegram এ ফলো করুন সবার আগে সর্বশেষ আপডেট পান Click Here

Google News এ ফলো করুন Click Here

গুরুতর অসুস্থ মুকুল রায়: বুঝতে পারছেননা তিনি কোন দলে

Current India Features Politics

নিজেই বুঝতে পারছেন না কোন দলে আছেন? বাস্তবিক বিজেপি বিধায়ক মুকুল রায়ের এমনই অবস্থা। বিজেপির টিকিটে জিতে বিধায়ক হওয়ার পরেও শেষমেশ ‘আ অব লউট চলে’ গাইতে গাইতে তিনি ত়ণমূল শিবিরের দিকে হাঁটা লাগান।


এদিকে দলত্যাগ বিরোধী আইনকে কার্যকর করে দলত্যাগীদের কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতে বদ্ধপরিকর শুভেন্দু অধিকারী। ওই আইনেই খাপ পেতে মুকুল রায়কে চেপে ধরতে গিয়ে দেখলেন মুকুল ভোঁভাঁ!
পরিবারের তরফে জানানো হয়েছিল তিনি অসুস্থ। তখনই শুভেন্দু বলেছিলেন , “অসুখ টসুখ সব তৃণমূলের সাজানো। মুকুল রায়কে অসুস্থ সাজিয়ে ঘরে বসিয়ে রাখা হয়েছে”।


সাজানো? নাকি সত্যিকারের কোনো অসুখ? 

এমন সন্দেহের কারণ মুকুলের অপর একটি মন্তব্য, ফিরে গিয়েও তিনি হঠাৎ দুম করে বলে বসেন,” কৃষ্ণনগরে উপনির্বাচন হলে তৃণমূল হারবে, বিজেপি আবার স্বমহিমায় ফিরে আসবে” (!) আরে হচ্ছেটা কি মশায়! ফিসফিস উঠতেই তিনি ভুল স্বীকার করে নেন “এমনটা বলা উচিত হয়নি”। ঘরের মানুষ ঘরে ফিরে আসার আনন্দে তৃণমূল ঘনিষ্ঠরা ‘অসুস্থ ‘ বলে ব্যাপারটা সামলে নেন ।


আজকের তাজা খবর অনুযায়ী এসএসকেমে ভর্তি হয়েছেন বিজেপির বিধায়ক । হ্যাঁ বিধায়কই , কেননা এখনও তিনি পদত্যাগ করেননি, অথচ ডিডিএলজের সিমরান কায়দায় পালাতে পালাতে উল্লেখ করে গেছেন “আমি যে তৃণমূলেই আছি!”। আর তাতেই ভুরু কুঁচকেছেন শুভেন্দু সহ রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। তাই হাসপাতালে সত্যি ভর্তি হওয়াটাকেও সন্দেহের চোখে দেখছেন।

শুভেন্দু যদি হার্ডকোর পলাতক দলত্যাগী না হতেন, তাহলে চামড়ার চোখে না হলেও হৃদয়ের চোখে ধরা পড়ত অসুখটা কেমন ছড়িয়েছে এক কালের তৃণমূলপ্রেমী এই লড়াকু সংগঠকের মনে।
এসএসকেএম হাসপাতালের উডবার্ন ওয়ার্ডের ১০৩ নম্বর ঘরে চিকিৎসকদের মাল্টি ডিসিপ্লিনারি টিম এখন পরখ করে দেখছে পটাশিয়াম-সোডিয়ামের হেরফের নাকি স্নায়ু সংক্রান্ত সমস্যা!

পটাশিয়াম না সোডিয়াম কোনটা বিজেপি বা তৃণমূল, এখনই চিহ্নিত করা যাচ্ছেনা, তবে প্রশ্ন উঠছে — বার বার দলবদলটাই কি শেষমেশ অসুখের কারণ হয়ে দাঁড়ালো!