IMG_20211126_233405

কিশোরের পুত্র হলেও কিশোর কন্ঠী হননি, হয়তো হতে চানও নি অমিত কুমার। স্বতন্ত্র বজায় রেখেই বিকশিত করতে চেয়েছেন নিজের শিল্পী সত্তাকে। তাই বলে বাবার সঙ্গে তুলনায় একটুও আপত্তি নেই তাঁর; নিজেকে কিশোর কুমারের উত্তরসূরী হিসেবেই নির্দ্বিধায় পরিচয় দেন। তবু কোথাও যেন আলাদা হতে চেয়েই, বহু ভালো ভালো হিন্দি ও বাংলা গান উপহার দেওয়া সত্ত্বেও, কিছুটা সরেই থেকে গেছেন শ্রোতাদের কাছ থেকে। এবার বহুদিন পর সেই অমিত কুমার যেন ফিরে এলেন তাঁর নতুন গানের মাধ্যমে, স্বকন্ঠে ঘোষণা করলেন –“জিন্দা হুঁ ম্যায়!”


সদ্য ইউটিউবে রিলিজ করেছে অমিতের নতুন গান। শুনলে আরেকটু অবাক হবেন — এই গানের গীতিকার হলেন লীনা চন্দ্রভারকর। তাঁর কথাগুলোই যেন নতুন সুরের মূর্চ্ছনায় ফিরিয়ে আনল ভারতীয় সঙ্গীতের এক অবহেলিত শিল্পীকে। ভিডিওর চলমান দৃশ্যেও সেই অনুভবেরই প্রকাশ। কবরের কফিন থেকে উঠে আসছেন শিল্পী! জানান দিচ্ছেন তিনি স্বাধীন এক পাখিরই মতো, খোলা আকাশে উড়তে ভালোবাসেন। “মুঝকো উড়নে দো না!” এক আবেদন বা আর্তি!


একসময় বিখ্যাত এক রিয়্যালিটি শো-তে কুমার শানুকে চ্যালেঞ্জ করে বলেছিলেন “আপনি বাবার ভক্ত, আমি বাবার রক্ত”। বিতর্ক ছড়ায় সেই থেকেই। রিয়্যালিটি শোয়ের প্রয়োজনীয়তা স্বীকার করেও মনে করেন অমিত কুমার — শিল্পীর তার নিজের কাজের প্রতি যত্নবান হওয়াটাই প্রাথমিক শর্ত।


সদ্যপ্রকাশিত গান ‘জিন্দা হুঁ ম্যায়’ ইতিমধ্যেই শ্রোতাদের বিপুল প্রশংসা পেতে শুরু করেছে। তাহলে কি এই গানেই ‘কাম ব্যাক’ হল গায়ক অমিত কুমারের?

অসংখ্য জনপ্রিয় কিশোরকন্ঠীর ভিড় থেকে আলাদা নিজস্ব এক জগত রয়েছে তাঁর। এতকাল সরে থেকেও ইউটিউবে, সোশ্যাল মাধ্যমে লক্ষাধিক ফলোয়ার রয়েছে অমিত কুমারের। নিভৃত চর্চায় নিজেকে নিরন্তর ভেঙে চলেছেন তিনি। নতুন গানে তারই প্রকাশ। এরপর শ্রোতাদের আরো কী উপহার দেবেন অমিত কুমার সেটা সময়ই বলবে। আপাতত “মুঝকো উড়নে দো না!” এটাই বোধহয় সেরা নিবেদন।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com