20211120_123203

ত্রিপুরায় তৃণমূল নেতা কর্মীদের ওপর বিজেপির আক্রমণ এখনও অব্যাহত। সুপ্রিম কোর্টের সরাসরি নির্দেশের পরেও বিরোধী দলকে নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হচ্ছে ত্রিপুরার প্রশাসন। এর সাম্প্রতিক দৃষ্টান্ত বৃহস্পতিবার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের পুরভোট প্রার্থীর ওপর আক্রমণ।


উল্লেখ্য, পুরভোট প্রস্তুতিকে সামনে রেখে সুস্মিতা দেবের করা মামলার শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি . ওয়াই . চন্দ্রচূড় কড়া নির্দেশ দিয়েছেন, “কোনও দলকেই শান্তিপূর্ণ প্রচারে বাধা দেওয়া যাবেনা। বিরোধীদের নিরাপত্তাও ত্রিপুরা সরকারকেই সুনিশ্চিত করতে হবে”। তারপরেও লাগাতার হামলায় কোনঠাসা করার চেষ্টা চলছে এমনই অভিযোগ তুলল তৃণমূল কংগ্রেস।


তেলিয়ামুড়ায় আক্রমণের পর এবার ত্রিপুরা পৌরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী বিকাশ সরকারের ওপর গত বৃহস্পতিবার নিষ্ঠুর আক্রমণ চালিয়েছে বিজেপির একদল গুন্ডা , ট্যুইটারে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস এমনটাই দাবি করেছে। আসলে ত্রিপুরায় তৃণমূলের অভ্যুত্থানের ভয়েই এই হামলা ঘটাচ্ছে বিজেপি, তৃণমূলের সেটাই অনুমান।


এই গেরুয়া সন্ত্রাসের প্রতিবাদস্বরূপ ত্রিপুরার ১১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ওইদিন সন্ধ্যায় একটি মোমবাতি মিছিলের আয়োজন করা হয়। যদিও এই প্রতিবাদ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো খিল্লি শুরু করে দিয়েছে বিজেপি সমর্থকরা।

জনৈক ব্যক্তি ত্রিপুরার এই মোমবাতি মিছিলর কথা উল্লেখ করে ট্যুইট করে লিখেছেন, “গতকাল আগরতলায় মৃণতূল কংগ্রেসের সুবিশাল মোমবাতী মিছিলে ৩০ জন লোক হয়েছে। এর মধ্যে ১০ জন এসেছে পশ্চিমবঙ্গ থেকে, ১৫ জন এসেছে নায়িকা দেখতে, আর ৫ জন বিভিন্ন দলের বর্জ্য পদার্থ”। এই ট্যুইটটি শেয়ার করে অট্টহাসির ইমোজি সাঁটিয়েছেন বিজেপির ‘সংস্কৃতিবান’ প্রাজ্ঞ নেতা তথাগত রায়।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com