VoiceBharat News 133628pjimage

সৌরভ গাঙ্গুলী র বায়োপিক আর তা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হবে না তা আবার হয় ! হ্যাঁ , সৌরভ গাঙ্গুলী : দ্য প্রিন্স অফ কলকাতা আর তার জীবনী নিয়ে তৈরি হতে চলেছে সিনেমা , একথা ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই উত্তেজনা চরমে ওঠে বিশ্বের সমস্ত দাদার অনুরাগীদের মধ্যে । কবে সিনেমার হলে দাদার বায়োপিক মুক্তি পাবে সেই নিয়ে আগ্রহ তুঙ্গে আর এবার হঠাৎ করেই সৌরভের বায়োপিকে নায়ক হিসেবে সিনেমার রুপোলি পর্দায় স্বয়ং দাদার অভিনয় করার জল্পনা উঠে আসতেই শোরগোল যে বেঁধেছে তা বলা বাহুল্য ।

ঘটনার সূত্রপাত ঘটে একটিমাত্র খবরে । কিছুদিন পূর্বে লভ রঞ্জন ঘোষণা করেন , তিনি সিনেমার পর্দায় সৌরভ এর জীবন কাহিনী সবার সামনে তুলে ধরতে চান আর তা প্রকাশ পাওয়ার পর থেকেই দাদার চরিত্রে অভিনয় করার জন্য রণবীর কাপুর থেকে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের নাম পর্যন্ত উঠে আসে তবে সকলের মুখে রণবীর কাপুরের নামটাই যেন বেশি ঘুরতে থাকে । কিন্তু এবার বাধ সাধলো রণবীর কাপুর এর একটি বক্তব্য এ । জানা যাচ্ছে , রণবীর কাপুর দাদার বায়োপিকে অভিনয় করতে আগ্রহী নন কারণ হিসেবে জানা যাচ্ছে তিনি একমাত্র সঞ্জু অর্থাৎ সঞ্জয় দত্ত ছাড়া কোনো বায়োপিকে অভিনয় করতে বর্তমানে চাইছেন না এছাড়াও আরেকটি প্রধান কারণ হিসেবে তিনি জানান , ক্রিকেটের থেকেও ফুটবল অভিনেতার বেশি পছন্দের ফলে সৌরভের বায়োপিক করতে গেলে তাঁকে গোটা সিনেমাজুড়ে ক্রিকেট প্র্যাকটিস করতে হবে যাতে তিনি বেশি স্বচ্ছন্দ নয় বলে জানা গেছে ।

সৌরভ গাঙ্গুলী

রণবীর কাপুর যদি একান্ত চরিত্রটি না করেন তবে এই চরিত্রে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের থাকা নিয়ে একটি জল্পনা দেখা দেয় কিন্তু প্রযোজক সংস্থা পরমব্রতকে নিতে আগ্রহী নয় কারণ হিসেবে তাঁরা জানান , সৌরভের মতো বিশ্বখ্যাত ক্রিকেটার এর জীবনী তাঁরা একটি সর্বভারতীয় মুখ দিয়েই করতে চান যার পপুলারিটি গোটা ভারত জুড়ে তাই পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় আঞ্চলিক অভিনেতা হওয়ায় তার দিকে পাল্লা যে কম তা স্বীকার করতেই হয় । লভ অবশ্য জানান , সিনেমার স্ক্রিপ্ট লেখা চলছে বর্তমানে ফলে একবার স্ক্রিপ্ট কমপ্লিট হলে পরবর্তীকালে চরিত্রের দিকটি বিবেচনা করে দেখা হবে ।

এই সকল জল্পনা মাঝে প্রত্যেকটি দাদার অনুগামীদের জন্য এক প্রকার চমকপ্রদক খবর উঠে আসতে থাকে । খবর অনুযায়ী , সৌরভ গাঙ্গুলীর বায়োপিকে স্বয়ং দাদাকে অভিনয় করতে দেখা যেতে পারে এবং যদি সত্যি এই ঘটনাটি শেষ পর্যন্ত ঘটে তবে ভারতের ক্রিকেট এবং সিনেমার ইতিহাসে এটি যে এক যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত হবে তা বলা যায় । যেহেতু দাদার বিজ্ঞাপনের অভিজ্ঞতা এবং দাদাগিরির সূত্রে ক্যামেরার সামনে তাঁর সাবলীলতা রয়েছে ফলে সিনেমার পর্দায় নিজের বায়োপিকে তাঁকে অভিনয় করতে দেখা গেলেও অবাক হওয়ার যে কিছু থাকবে না তা মানছেন সকলে । ফলে এতকিছু জল্পনা মাঝে শেষ পর্যন্ত কোনো বিখ্যাত অভিনেতাকে বায়োপিকে দেখা যায় নাকি প্রিন্স অফ কলকাতা ফিল্মের দুনিয়ায় নিজের আত্মপ্রকাশ ঘটান , সেই দিকে তাকিয়ে গোটা দেশবাসী ।