VoiceBharat News IMG 20211016 192210

চন্দ্রনাথ বসু যেদিন পরিবার সূত্রে পাওয়া নেতাজি সুভাষ চন্দ্রের টুপি নরেন্দ্র মোদীকে উপহার স্বরূপ তুলে দিলেন — সেদিনই দেশের জাতীয় দল কংগ্রেসের মাথায় প্রথম বাজটা পড়েছিল। এবার নেতাজির ১২৫ তম জন্মদিবস পালনের বর্ষব্যাপী আয়োজন মাধ্যমে বুঝিয়ে দিতে বদ্ধ পরিকর বিজেপি সরকার, নেতাজিকে প্রকৃত সম্মান দিতে তারাই একমাত্র উদ্যোগী।

VoiceBharat News e97c53e4 2d28 11ec be0b d2c840e92b17 1634380922394 1634380936546


রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করেন সুদূর দিল্লীতে বসে বিজেপির অবাঙালী শীর্ষ নেতৃত্ব ছক কষে ভালোই বুঝেছিলেন বাংলায় নিজেদের আসন তৈরি করতে বাঙালির সবচেয়ে স্পর্শকাতর দিকটি কী!
নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু। বাঙালি তথা সমস্ত ভারতবাসীর মননে-আবেগে জড়িয়ে আছে এই একটি নাম।

বাংলায় নিজেদের কর্তৃত্ব কায়েমে খুব বেশি সফল না হলেও গত বিধানসভা নির্বাচনে চন্দ্রনাথ বসু নামটাই যে ভবানীপুরে বিজেপির আসন সংখ্যা বাড়িয়েছিল নিশ্চয়ই এতে কারুর দ্বিমত নেই! কংগ্রেসের সবচাইতে দুর্বল জায়গাটাই যে তাঁরা ধরতে পেরেছিলেন, এখনও তা অব্যহত। আন্দামান দ্বীপে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ নাম না করেই কংগ্রেসকে ঠুকে বললেন, “নেতাজির প্রতি অবিচার হয়েছিল। যাঁরা দেশের জন্য এতবড় আত্মত্যাগ করেছেন ইতিহাসে তাঁদের নাম স্মরণীয় করে রাখা উচিত”।

VoiceBharat News 165203


সেই সূত্রেই আন্দামানের ‘রস ‘ দ্বীপের নামকরণ নেতাজি সুভাষচন্দ্রের নামে রাখার কথা আবারও ঘোষণা করে দিলেন অমিত শাহ।


নেতাজির সাথে আন্দামানের স্মৃতি অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে রয়েছে। ১৯৪৩ সালে জাপানিদের যৌথ সহযোগিতায় আন্দামান দখল করে সেখানেই প্রথম স্বাধীন আজাদ হিন্দ সরকার গঠন করেন নেতাজি। তখনই তিনি ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন  আন্দামান – নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের নাম শহীদ ও স্বরাজ রাখা হোক। নেতাজির সেই ইচ্ছাকে সম্মান জানাতেই ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসেই বিজেপি সরকার আন্দামানের ৩ টি দ্বীপ রস, নেলি ও হ্যাভলকের নাম বদলে যথাক্রমে নেতাজি সুভাষ, শহীদ ও স্বরাজ নাম রাখার ঘোষণা করেছিল।

VoiceBharat News 165201 1512923508cover.jpg


কেন্দ্রীয় সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি  দিনটি ‘পরাক্রম দিবস’ হিসেবে উদযাপিত হয়, এবং সারাবছর ব্যাপি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়ে চলেছে। সেই উপলক্ষ্যেই অমিত শাহর আন্দামান যাত্রা ও ‘রস’ দ্বীপের নতুন নামকরণ। প্রসঙ্গত তিনি বলেন,  “নেতাজির জীবনের দিকে নজর দিলে আমরা দেখতে পাই তাঁর প্রতি অবিচার হয়েছে। তাঁকে ইতিহাসে তাঁর প্রাপ্য স্থান দেওয়া হয়নি”। এ কথায় কংগ্রেসের প্রতি শ্লেষ স্পষ্ট প্রকাশিত।


উল্লেখ্য, নেতাজির নামে দ্বীপের নামকরণের পাশাপাশি ১২৫ তম নেতাজি জয়ন্তী উপলক্ষ্যে সারাবছর ব্যাপি গোটা দেশ জুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের জন্য ২০২১-এর শুরুতেই ৮৫ জনের একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ওই কমিটির চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিশিষ্ট সদস্য তালিকায় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী, লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা সহ ক্রীড়া ও সংস্কৃতির সাথে জড়িত বিভিন্ন ব্যক্তির নাম রয়েছে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com