ei-samay

পেট্রোল ডিজেল সহ জ্বালানিতে ভ্যাট কমানোর দাবিতে বারুইপুরে মিছিলে নামেন বিজেপির নেতাকর্মীরা। পুলিশের বাধা পেতেই বিক্ষোভ রূপ নিল চরম সংঘর্ষে। বিজেপির রাজ্যসভাপতি সুকান্ত মজুমদারের হুঙ্কার –“পুলিশ দলদাসে পরিণত হয়েছে”।


দীপাবলি উপলক্ষ্যে নভেম্বর মাসেই পেট্রোপণ্যে শুল্ক কমিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ২৩ টি রাজ্যে ইতিমধ্যেই পেট্রোল ডিজেলের মূল্য কমানো হয়েছে,  কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে তা এখনও কার্যকর হয়নি।  রাজ্য সরকার তাদের নির্ধারিত ভ্যাট না কমানোর ফলে, রাজ্যে কমছেনা পেট্রোপণ্যের দাম — অবিলম্বে ভ্যাট কমাতে হবে — এই দাবিতেই আজ সকালে বারুইপুরের ফুলতলি থেকে সুকান্ত মজুমদারের নেতৃত্বে বিশাল মিছিলে নামেন বিজেপির কর্মী সমর্থকরা।

পুলিশের অনুমতি না মেলায় মিছিল কার্যত বিক্ষোভের চেহারা নেয়; পুলিশের সাথে বিজেপি কর্মীদের তীব্র সংঘর্ষ বেধে যায়। বারুইপুর উড়ালপুলে মিছিল আসতেই ব্যারিকেড করে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করতে থাকে পুলিশ। ক্রমে ধ্বস্তাধস্তি । বিক্ষোভ রুখতে নেমে পড়ে বিশাল পুলিশ বাহিনী। এর মাঝখানেই একটি ম্যাটাডোরে উঠে হুঙ্কার ছেড়ে বলে ওঠেন সুকান্ত মজুমদার, “পুলিশ দলদাসে পরিণত হয়েছে। বাড়ির চাকরের মতো আচরণ করছে! জ্বালানির ভ্যাট কমানো না হলে নবান্ন অভিযান করা হবে। তাতেও কাজ না হলে অনশনে বসব আমরা”।


কিন্তু মিছিলে বাধা দিল কেন পুলিশ? সুকান্ত মজুমদার জানিয়েছেন, “অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইন্দ্রজিৎ বসুর সাথে কথা বলে আমি জানতে পারি পুলিশ কোনও অনুমতি দেয়নি। সেকারণেই এসপি অফিসের আগে আটকে দিয়েছে”।


মিছিল করতে না দেওয়া প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে সুকান্ত কটাক্ষ করে বলেছেন, “আসলে এখানে পুলিশের দুটো কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এক হল কালিঘাটে পাহারা দেওয়া আর দ্বিতীয় হল বিজেপিকে আটকানো। নিচুতলার পুলিশ কর্মীদের ওপর আমার কোনও অভিযোগ নেই।   কিন্তু কিছু কিছু পুলিশ অফিসার তৃণমূলের দালালের পরিণত হয়েছে “। 

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com