VoiceBharat News IMG 20211110 141228

সম্প্রতি ৪ বিজয়ী তৃণমূল বিধায়কের শপথবাক্য অনুষ্ঠানে ইচ্ছাকৃতই গরহাজির ছিলেন বিজেপি বিধায়করা। তাদের লক্ষ্য করে এদিন নিজের বক্তব্যে ক্ষোভ উগরে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী স্পষ্ট বললেন, “এত বাজে বকে কাজের কাজ কিছু করেনা। বিরোধীরা কখন আসে কখন যায় নিজেরাই জানেনা”।

VoiceBharat News IMG 20211110 133731


এইদিন নিয়মমতোই ৪ বিধায়ককে শপথবাক্য পাঠ করান স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। উল্লেখ্য, রাজ্যপাল জয়ী বিধায়কদের শপথবাক্য পাঠ করাবেন এই নতুন রীতির বদলে পূর্বের মতোই স্পিকারের হাতে সেই ক্ষমতা ন্যস্ত হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের জন্য রাজ্যপালকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বলেছেন, “বিধানসভার পরম্পরা নিয়ে কোনোরকম অসৌজন্যমূলক আচরণ উচিত নয়। স্পিকার বলিষ্ঠ মানুষ। তিনি আইন সম্পর্কে যথেষ্ট অবগত আছেন। স্পিকার থাকাকালীন ডেপুটি স্পিকারকে দায়িত্ব দিয়ে মনোমালিন্য সৃষ্টি করা ঠিক নয়। শুভবুদ্ধির উদয় হয়েছে এতে আমরা খুশি”।


এই খুশির মাঝখানেও বিরোধীদের কটাক্ষ নিয়ে উচ্চকিত মন্তব্য রাখতে পিছপা হননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রশ্ন তুলেছেন তাদের দায়িত্ববোধ নিয়েও।
বিজেপি রাজ্যসভাপতি সুকান্ত মজুমদার অবশ্য স্পষ্ট জানিয়েছেন, ইচ্ছা করেই বিধায়করা এদিন অনুপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ তুলে তিনি বলেছেন, “রাজ্য জুড়ে ছটপূজোর প্রস্তুতি চলছে। তার মধ্যেই বিধানসভার অধিবেশন ডাকায় মানুষের ধর্মীয় আবেগে আঘাত লাগতে পারে”।

VoiceBharat News 1632162391 sukanta min


তাই এইসময়ে অধিবেশন ডাকার বিরুদ্ধতা করেছিল বিজেপি। সেই বিরুদ্ধতা অগ্রাহ্য করে অধিবেশন ডাকা হয়েছে, তাই প্রতিবাদ স্বরূপ অধিবেশন বয়কট করেছেন বিজেপি বিধায়করা। বিধানসভায় যাওয়া সত্ত্বেও কেউ এদিন শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির থাকেননি।

তাহলে কি বিধানসভার কর্মসূচির থেকেও মানুষের ধর্মীয় আবেগকে তাঁরা বেশি প্রাধান্য দেন? সুকান্ত মজুমদারের বক্তব্য শুনে কেউ কেউ এমন প্রশ্ন তুলছেন।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com