কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

বাবুলকে ‘ঝুনঝুনি’ দেবে তৃণমূল! এটা কী বললেন দিলীপ ঘোষ

Current India Features Politics

বঙ্গ রাজনীতিতে আলটপকা মন্তব্য করতে দিলীপ ঘোষের জুড়ি নেই। সেই মন্তব্যগুলো মাঝেমধ্যে হুস করে বিতর্কে ইন্ধনও লাগিয়ে দেয়। এদিন সাতসকালে বাবুল সুপ্রিয় সম্পর্কে এমনই এক মন্তব্য ছুঁড়ে বসলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি।


ফুল পাল্টে তৃণমূলে যাওয়ার পরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় পাত্র হয়ে উঠেছেন বাবুল। শোনা যাচ্ছে মেয়র প্রার্থী হিসেবে তাঁর নাম প্রস্তাবিত হতে চলেছে! এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষের প্রতিক্রিয়া চাওয়া হলে তিনি সংবাদ মাধ্যমে বলেন, “তৃণমূল কিছুই করবেনা বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে। কিছুই দেবেনা, শুধু ঝুনঝুনি দেবে”।

কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304


প্রসঙ্গত, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর জাগো বাংলার শারদীয় সংখ্যা প্রকাশ অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে তাঁর প্রিয় এক বাদ্যযন্ত্র ‘পিয়ানিকা’ উপহার দিয়েছিলেন বাবুল। ফুঁ দিয়ে বাজিয়ে ডেমোও দেখিয়েছিলেন ভরা স্টেজে। দিলীপ ঘোষ কি এই বাজনার প্রসঙ্গ তুলেই পাল্টা উপহার ‘ঝুনঝুনির’ প্রসঙ্গ তুলে খোঁচাটা দিলেন ? এই প্রশ্নই অনেকের মনে ঘুরছে।


রাজনৈতিক মহলে কানাকানি চলছে বাবুলকেই নাকি মেয়র পদের জন্য প্রার্থী হিসেবে ভাবা হচ্ছে। মমতা তো বটেই, খোদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়েরও প্রিয় পাত্র বাবুল সুপ্রিয়। এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ আগেই কটাক্ষ করে বলেছেন, “যতদিন উনি বিজেপিতে ছিলেন ততদিন বিজেপির ব্যাঙ হয়ে ছিলেন। বিজেপির মতো মহাসমুদ্রে টিঁকতে পারেননি, তাই ডোবায় গিয়ে ডুব দিয়েছেন “।

আর এবার বাবুলের মেয়র হবার সম্ভাবনাকে ‘ঝুনঝুনি’ বাজিয়েই উড়িয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর প্রশ্ন, “বাবুল সুপ্রিয় কলকাতায় কবে কাজ করেছেন? উনি তো কলকাতার ভোটারও নন।… এসব কথা লোককে খাওয়ানোর জন্য বলা হচ্ছে, ওসব কিছুই হবেনা “।


দিলীপ ঘোষের মন্তব্য ভবিষ্যতে কতদূর মেলে, বাবুল ‘ঝুনঝুনি’ নাকি অন্যকিছু পান, সেটা ভবিষ্যত বলবে।