anubarata

ভবানীপুরে তৃণমূলের “ভয়ঙ্কর খেলা” জয়ের পর লাগামছাড়া অনুব্রত মন্ডল। যথারীতি নতুন এক মন্তব্য নিয়ে হাজির হলেন স্বমিমায়। তবে এবারের মন্তব্যে তাঁর নিজের দল তৃণমূল কংগ্রেসকেই ভীষণরকম অস্বস্তিতে ফেলে দিলেন অনু্ব্রত। ভাবে ভঙ্গিতে তৃণমূল তাঁর প্রতি কটাক্ষে বুঝিয়ে দিয়েছে ‘এতটাও ভালো নয় ‘।


ভবানীপুরের বিপুল জয়ের পর এবং শামসেরগঞ্জ ও জঙ্গীপুরে তৃণমূলের বিজয় পতাকা তুলে উচ্ছাসে মেতে উঠেছে দল। সেটাই স্বাভাবিক। তবে বীরভূমের ‘মাটির মানুষ’ অনুব্রত কিছু অতিরকম স্বাভাবিক হওয়ায় পালিশ দিতে জানেননা নিজের কথায়। স্বভাবতই এবার তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি নিজের ঢঙেই বলতে শুরু করে দেন, “আমি তো আগেই বলেছিলাম মমতা ব্যানার্জী ৬০ থেকে ৮০ হাজার ভোটে জিতবেন। মানুষ তো মমতা ব্যানার্জীর কাজ দেখেছেন। এই লক্ষীর ভান্ডার, এই দুয়ারে সরকার। মানুষ তো মমতাকেই ভোট দেবে”।

বস্তুত অনুব্রতর ভবিষ্যবাণী অনেকটাই মিলে গেছে। ষাটেরই কাছাকাছি প্রায়, ৫৮,৮৩৫ ভোটে জয়ী হয়েছেন মমতা। তবে সেই উল্লাসের বিপরীতে বিজেপির হার নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি ৫৮,০০০ ভোল্টের মন্তব্য করে বললেন ,”বিজেপি কী করবে বিজেপিই জানে। ঘরে বসে থাকবে নাকি মুখ থুবড়ে থাকবে নাকি ছাগলের মতো চার পায়ে হাঁটবে সেটা ওরাই ভালো বলতে পারবে। বিজেপি ছাগল, বেড়ালের দল”।


এই সাংঘাতিক মন্তব্যের পরও অনব্রতর কাছে নন্দীগ্রাম প্রসঙ্গ তোলা হয়। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ্যেই তিনি বলেন, “আদালত রায় দিলে ,নন্দীগ্রামে আবার যদি গনণা হয় তাহলে মমতা ব্যানার্জীই জিতবেন”।

কার্যত এভাবেই ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে কথা প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীকে “পাগলের বাচ্চা” বলে সম্বোধন করেন অনুব্রত।


বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের এবারের মন্তব্যে অস্বস্তির মুখে পড়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় এই ধরনের মন্তব্যকে “ব্যক্তিগত” মন্তব্য বলেই ইঙ্গিত করেছেন। তবে অনুব্রতর কথাবার্তার ধরন শোধরানো নিয়ে ইতিমধ্যেই দলের অভ্যন্তরে বিতর্ক শুরু হয়ে গেছে।
অনুব্রত মন্ডলের এই হেনস্থাসূচক মন্তব্যের পাল্টা প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়েছিল বিজেপির কাছে। তবে উত্তর দেওয়ার উপযুক্ত ভাষা খুঁজে পায়নি বিজেপি দল।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com