আমাদের Telegram এ ফলো করুন সবার আগে সর্বশেষ আপডেট পান Click Here

Google News এ ফলো করুন Click Here

chandana

বিজেপি বিধায়কের খিলাফ উঠলো পরকীয়ার অভিযোগ! নালিশ পৌছায় পুলিশের কাছে

Current India Features Politics

পরকীয়া নিয়ে অভিযোগ উঠেছে বিজেপে বিধায়ক চন্দনা বাউড়ির উপর।বৃহস্পতিবার ঘটে এই ঘটনা টি, চন্দনা হলেন বাঁকুড়ার শালতোড়ার এলাকার বিজেপি বিধায়ক। ঘটনা সুত্রে , জানাগিয়েছে চন্দনার স্বামী থাকা সত্তেও তিনি নিজের গাড়ির ড্রাইভার কে বিয়ে করেছেন আবার এদিকে সেই ড্রাইভার ও ছিল প্রথম থেকেই বিবাহিত। এই ঘটনার জেরেই বাঁকুড়ার গঙ্গাজল ঘাটি থানায় বৃহস্পতিবার চন্দনার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সেই গাড়ি চালকের স্ত্রী রূম্পা কুন্ডু।

chandana

কিন্তু সমস্ত রকম অভিযোগ খারিজ করে দেন চন্দনা বাউড়ি, তার বক্তব্য তাঁর এবং তাঁর স্বামী শ্রাবন বাউড়ির ঘরোয়া ঝামেলা কে উদ্দেশ্য করে এটি কে রাজনৈতিক ভাবে দেখানো হচ্ছে। বাঁকুড়ার পুলিশ সুপার কে জিজ্ঞেস করাতে তিনি জানান রূম্পা কুন্ডুর একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে তবে এই বিষ্ইয়ে আরো খতিয়ে দেখবে পুলিশ। এদিকে সমস্ত রকম অভিযোগ কে মিথ্যা বলে খারিজ করার চেষ্টা করেন চন্দনা। তার স্বামী শ্রাবন বাউড়ি ও বলেন সেই একি কথা। চন্দনা জানান তাঁর স্বামীর সাথে তাঁর ঝগড়া হয়েছিল ঠিকই এই কথা পুলিশ পর্যন্ত পৌছালেও পরে তারা নিজেদের মধ্যে সব ঠিক করে নেয়। চন্দনার স্বামী জানায় সেই দিন মনসা পুজোর উপলক্ষে অতিরিক্ত মদ্যপান করেন তিনি যা থেকেই ঝগড়ার সৃষ্টি কিন্তু পরকীয়ার কন ব্যাপার নেই এখানে।

এই নিয়ে কোনো রকমের মন্তব্য করেনি বিজেপি সরকার। কিন্তু চন্দনা ও তাঁর স্বামী ফেসবুকের মাধ্যমে লাইভে এসে নিজেদের বক্তব্য প্রকাশ করে এটা পুরটাই বিরোধি দলের রাজনৈতিক কারশাজি বলেই দাবি করেন তারা দুজন। আবার এই দিকে কয়েকজন বিজেপি কর্মী যারা নাম জানাতে ইচ্ছুক নন তারা বলেন চন্দনার গাড়ি চালক একজন বিজেপি কর্মী তাঁর নাম কৃষ্ণ কুন্ডু , তাঁর সাথে চন্দনার বিবাহ হয়ে থাকতে পারে বলে সন্দেহ তাদের, কিন্তু তারা বলেন দুই পক্ষের মধ্যে কেউই এই কথা ৫ কান করতে রাজি নন। এদিকে জেলা বিজেপির কয়েকজন দাবি করেন কৃষ্ণ কুন্ডু কোনো গাড়ি চালক নন উনি শাতোড়া বিধানসভার দলীয় কো- কনভেনর। আপাতত পুলিশ চন্দনার খিলাফ বধূ নির্জাতনের মামলা দায়ের করেছে ।

পুলিশের দাবি তাদের দুজনের বিবাহের বিষয় টি পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন চন্দনা নিজেই। কিন্তু অপর দিকে চন্দনা বলেন এই সব দাবি মিথ্যা, আমি কোনো দিনই এই কথা বলিনি। আমরা দুইজনেই নিজেদের জীবনে বিবাহিত, কিন্তু অভিযুক্ত গাড়ির চালক কৃষ্ণ কুণ্ডুর স্ত্রী রূম্পা কুন্ডু জানান গত বুধবার রাতে চন্দনা ও কৃষ্ণ বিয়ে করেছেন। পুলিশ অবিযোগ পেয়েই দুই জনের খিলাফ ধারা ৪৯৮-এ বধূ নির্যাতনের মামলা এবং ধারা ৫০৬ ভয় দেখানোর মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এখনো চন্দনা এইসব কিছু কে মিথ্যে বলে দাবি করছেন, তাঁর মতে তাঁকে ফাসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।