education

সাক্ষরতা মানুষের অধিকার।সমাজের উন্নতির জন্য শিক্ষাকে প্রধান হাতিয়ার করতে হবে।জীবনে চলার পথকে শিক্ষার মাধ‍্যমে সুগম করে তুলতে হবে।তার প্রথম পদক্ষেপ হল সাক্ষরতা, যা একজন মানুষকে সুন্দর,বিবেকবান,সুচরিত্রের অধিকারী হিসাবে গড়ে তোলে। সেই প্রয়োজনের তাগিদে বিশ্বের সবকটি দেশ আজ এগিয়ে এসেছে।প্রতিটি নাগরিককে সাক্ষর করা ও সমগ্র দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই লক্ষ্য।

VoiceBharat News bhnkkj

এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে প্রতি বছর আজকের এই দিনটি বিশ্বব‍্যাপি উদযাপন করা হয়।৮ই সেপ্টেম্বর বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস। ১৯৬৬ সালের ৮সেপ্টেম্বর বিশ্ব স্বাক্ষরতা দিবস পালন করার কথা ঘোষণা করা হয়েছিল। শিক্ষায় অগ্রগতির দিকে লক্ষ‍্য রেখে প্রতি বছর যে কোন একটি বিষয়কে সেই বছরের স্বাক্ষরতা দিবসের থিম হিসেবে বেছে নেওয়া হয়।এই বছরে ডিজিটাল শিক্ষা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে  সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং ডিজিটাল শিক্ষায় শিক্ষিত করাই প্রধান লক্ষ‍্য।  ভয়াবহ কোভিড কালে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শিক্ষা ব‍্যবস্থা। কোভিড আবহে পড়াশোনার  প্রধান মাধ‍্যম হয়ে উঠেছিল অনলাইন ক্লাস। আর্থিক খারাপ অবস্থার কারণে বহু পড়ুয়া এই অনলাইন ক্লাস ও করতে পারে নি।যার ফল স্বরূপ গত দেড় বছরে সমাজে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিরাট প্রভাব পড়েছে ।

VoiceBharat News bmjn

  ইউএনইসসির মতে, সারা বিশ্বে  সাতশো মিলিয়নের উপর মানুষ এখনও শিক্ষার আলো থেকে পিছিয়ে আছে।2021এর বিশ্ব স্বাক্ষরতা দিবসের লক্ষ‍্য শিক্ষা ক্ষেত্রের প্রসার ঘটানো ও আরও বেশী সংখ‍্যক মানুষকে স্বাক্ষরিত করা। এবছর বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষে ইউএনইএসসিও ,ওয়েবিনারের আয়োজন করেছে।স্বাক্ষরতাকে সমাজিক উন্নয়নে হাতিয়ার করে তুলতে হবে এই বিষয়টিকে আলোচনার মুখ‍্য বিষয় হিসাবে রাখা হবে। প্রথাগত শিক্ষার সঙ্গে ডিজিটাল শিক্ষার গুরুত্ব বাড়িয়ে তুলতে হবে‌।পড়ুয়াদের শিক্ষা ও শিক্ষা সংক্রান্ত সকল উন্নয়নের  উপর আলোচনা করা হবে ওয়েবিনারে। আজ বিশ্ব স্বাক্ষর দিবসে বেশী সংখ‍্যক মানুষকে স্বাক্ষরিত করা মূল লক্ষ‍্য করে এগিয়ে যাওয়া দরকার।দেশের প্রতিটি ঘরে ঘরে স্বাক্ষরতার আলো পৌঁছনো প্রয়োজন তবেই দেশর উন্নয়ন হবে।শিক্ষা ছাড়া দেশের,সামাজিক উন্নয়নক কখনই সম্ভব নয়।