আমাদের Telegram এ ফলো করুন সবার আগে সর্বশেষ আপডেট পান Click Here

Google News এ ফলো করুন Click Here

বড়বাজারে হানা দিয়ে মিলল বিপজ্জনক খাদ্যবস্তু, কী এগুলো!

Current India Features Health

বিয়ের অনুষ্ঠান হোক বা খাবার হোটেলের মুখসুদ্ধি, এমনকি পানের দোকানেও যে জিনিসটি ঢালাও বিক্রী হয়ে চলে, খাওয়া দাওয়ার পর মুখ বদলাতে যে বস্তুটি অনেকেই মুখে দিয়ে চিবোতে পছন্দ করেন– অনেকে হয়তো জানেননা জিনিসটা কী পরিমাণে ক্ষতিকারক! সম্প্রতি বড়বাজারের একটি দোকানে হানা চালিয়ে সেই বিপজ্জনক খাদ্যবস্তুই বিপুল পরিমাণে উদ্ধার করে বাজেয়াপ্ত করল কলকাতা পুলিশ।


সবুজ রঙের কাঁচা মৌরি। মুখসুদ্ধি হিসেবে যেটি বাজারে বেশ চলে, জানেন কি, অনেক ক্ষেত্রে আদপেই সেটি কাঁচা মৌরি নয়! হ্যাঁ, আসলে ওই মৌরি সবুজ রঙ করা। ‘স্নোসেম কালার’ বলে যা পরিচিত সেই রঙ দিয়েই।


দীর্ঘদিন ধরেই কলকাতা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট বিভাগ তক্কে তক্কে ছিল।শনিবার বিভাগীয় প্রধান যুগলকিশোর দাঁ সদলবলে বড়বাজারের কালীকৃষ্ণ টেগোর লেনের ‘মা কামাখ্যা এন্টারপ্রাইজ’ নামে একটি বিখ্যাত দোকানে খানাতল্লাশি চালান। ওই দোকান থেকে প্রায় ১৫০ কেজি বস্তাবন্দী মৌরি উদ্ধার করল পুলিশ। অবশ্যই স্যাম্পেল টেস্টের জন্য তা আগেভাগেই ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছিল।


এনফোর্সমেন্ট বিভাগের প্রধান যুগলকিশোর বলছেন, “পরীক্ষার ফলে জানা গেছে ওই মৌরি ইন্ডাস্ট্রিয়াল রঙ দিয়ে সবুজ করা হয়, যা মানুষের স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকারক”। এই দোকানের মালিক অরুন কুমার গুপ্তা এবং দোকানের সাথে যুক্ত আরো অনেককে খাদ্যে ভেজাল চক্র চালানোর অভিযোগে আটক করা হয়েছে।
এক বিশেষজ্ঞের মতে, “আমাদের রাজ্যে খাদ্য ভেজালে শীর্ষ স্থানে রয়েছে বড়বাজার এলাকা। অতিরিক্ত ঘিঞ্জি হবার ফলে পুলিশের পক্ষে খোঁজ করা কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। ইদানিং কলকাতা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ সক্রিয় হবার ফলে একে একে এসব অপরাধ চক্র ধরা পড়ছে”।


ভেজাল মৌরি প্রসঙ্গে যাদবপুর ইউনিভার্সিটির গবেষক ডক্টর প্রশান্ত বিশ্বাস বলেছেন, “ইন্ডাস্ট্রিয়াল রঙে সীসা জাতীয় একাধিক ভারি পদার্থ থাকে, যা খাদ্যের সাথে পেটে গেলে ভয়ানক ক্ষতি হতে পারে। এছাড়াও ইন্ডাস্ট্রিয়াল রঙে রয়েছে টাইপ টু টাইপ কারসিনোজেন, যা রীতিমতো ক্যান্সারের কারণ। এই রঙে আরো এক পদার্থ মেলাটাইট গ্রিন যার ফলে মানুষের জেনেটিক পরিবর্তন পর্যন্তও হতে পারে”।


বড় বাজারের আটক ব্যবসায়ী পুলিশের জেরায় স্বীকার করেছেন, অনেক দিন ধরেই তিনি এই ইন্ডাস্ট্রিয়াল রঙ মেশানো মৌরি প্রস্তুত ও হোটেলে, দোকানে সরবরাহ করে আসছেন। কাঁচা মৌরি ভ্রমে যে বস্তু খেলে আর রক্ষে নেই।