bjp-mp-lequar-696x392

পার্লামেন্টের বহু দৃশ্যই মাঝে মাঝে দেখবার মতো হয়। কোনও কোনও ক্ষেত্রে বিরোধীদলের বিক্ষোভে রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পার্লামেন্ট। তবে এবার এক নতুন কায়দায় নিজের প্রতিবাদ জাহির করলেন বিজেপি সাংসদ পারভেশ সাহেব সিং ভার্মা। একই সঙ্গে সেটা আশ্চর্যও বটে!


সম্প্রতি এক অধিবেশনে মদের বোতল হাতে নিয়েই পার্লামেন্টে প্রবেশ করলেন বিজেপি সাংসদ। উদ্দেশ্য? । দিল্লীর কেজরিওয়াল সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ।
সাংসদ ভার্মা অভিযোগ তুলেছেন, মদ্যপানে উৎসাহ দিচ্ছে কেজরিওয়াল সরকার। তাই পার্লামেন্টের অভ্যন্তরে প্রতীকী প্রতিবাদস্বরূপ মদের বোতল নিয়ে হাজির তিনি। মদ্যপান থেকে সরকারের ব্যাপক অঙ্কের রাজস্ব আদায়ের পরিসংখ্যান তুলে সেটা প্রমাণ করবার চেষ্টাও করেছেন তিনি।

কিন্তু, তাঁর এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েও কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন — তলোয়ার দিয়েই কি গলা কাটার প্রতিবাদ করতে হয়? তাহলে মদের বোতল নিয়ে মদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কেন? এটা ঠিক কেমন রীতি? পরিস্কার নয়।

যদিও সেই বোতলের কভারে মদ ছিল কিনাা সেটা নিয়ে বিতর্ক থাকতে পারে।


সে যাই হোক, পার্লামেন্টে বিজেপি সাংসদ পারভেশ সাহেব সিং ভার্মা তথ্য দিয়ে বলেছেন,”কোভিডকালীন যখন ২৫,০০০ মানুষ মারা গিয়েছিল, সেই সময়ে দিল্লীর আম আদমি পার্টি সরকার নতুন আবগারি নীতি তৈরিতে ব্যস্ত ছিল, যাতে মদের বিক্রী বেড়ে যায়।”

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতিতে মদের দোকান বন্ধ থাকলেও পরে সেগুলো খুলে দেওয়া হয়। বাড়িয়ে দেওয়া হয় পানশালা খুলে রাখার সময়ও।
সেই উল্লেখ করে সাংসদ ভার্মা আরও যোগ করেন, “আজ ৮২৪টি নতুন মদের দোকান খোলা হয়েছে। আবাসিক, কলোনি, গ্রাম ও নন-কনফর্মিং এলাকাতেও মদের দোকান খোলা হচ্ছে। পানশালা ও মদের দোকান রাত ৩ টে পর্যন্ত খুলে রাখা হবে, শুধু তাই নয়, রাত ৩ টে পর্যন্ত মহিলারা পানশালায় বসে পান করলে দেওয়া হবে বিশেষ ছাড়!”

অ্যালকোহল সেবনের বয়সসীমা কমিয়ে ২৫ থেকে ২১ করারও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাংসদ ভার্মা। এদিন কেজরিওয়াল সরকারের নয়া আবগারি নীতির বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলে তিনি আরো বলেন,”যুব সমাজকে আকন্ঠ মদের নেশায় ডুবিয়ে বেশি বেশি রাজস্ব আদায় করে কোষাগার ভরতে চান।”

সাংসদ পারভেশ সাহেব সিং ভার্মা তাঁর পাঞ্জাব সফরকালে কেজরিওয়ালের মদ্যপান বিরোধী বক্তব্যও মনে করিয়ে দিয়ে বলেছেন,”যিনি পাঞ্জাবে গিয়ে মদ্যপানের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছিলেন, তিনিই দিল্লীতে মদ্যপানের প্রসার ঘটাচ্ছন!”

বিজেপি সাংসদের মদ্যপান বিরোধী ও কেজরিওয়াল সরকারের আবগারি নীতির বিরুদ্ধ বক্তব্যে দিল্লীর রাজনীতি সরগরম। অনেক মানুষ তাঁর এই প্রতিবাদকে স্বাগত জানিয়েছেন। কিন্তু এই প্রতিবাদ করতে তিনি মদের বোতল সঙ্গে নিয়ে পার্লামেন্টে কেন গেলেন, সেটা এখনও ঠিক পরিস্কার নয় বলেই অনেকে মনে করছেন।

‘কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলা’ বলে একটা প্রবাদ চালু রয়েছে, কিন্তু সংসদের অভ্যন্তরে মদের বোতলের কভার আর কাচের গ্লাস নিয়ে ডেমো দেখিয়ে মদ্যপানের প্রতিবাদ! কে জানে, নিন্দুকেরা কত কথাই না বলে। তাতে আর কি আসে যায়!

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com