d545cb8f6f127ae6560037e35ded3ab4_original

আর নয় বিজেপি দলে । সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে মহালয়ার দিনেই তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন ত্রিপুরার বিজেপি বিধায়ক আশিস দাস। ত্রিপুরা থেকে হটাৎ কলকাতায় এসে মাথা ন্যাড়া করে গঙ্গায় ডুব দিলেন আশিসবাবু। বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন।

ত্রিপুরার বিজেপি বিধায়ক আশিস দাস নামকরা নেতা। দিন কয়েক ধরে তৃণমূলের প্রশংসা ধরা পড়ছিল তাঁর গলায়। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের আচরণের বিরুদ্ধে একাধিকবার সমালোচনা শোনা গিয়েছে তাঁর মুখে। তাই ভবানীপুর উপনির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাফল্যের পরের দিনেই তৃণমূলে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন আশিস দাস। এমনকী এবার ত্রিপুরা থেকে কলকাতায় এসে বিজেপি করার ‘প্রায়শ্চিত্ত’ করতে মাথা ন্যাড়া করাবেন বলে জানিয়েছিলেন তিনি। হলো তাই। মহালয়ার আগের দিনেই ত্রিপুরা থেকে কালীঘাটে এসে প্রতিশ্রুতি সারলেন বিজেপি বিধায়ক।

বিজেপি

মাথা ন্যাড়া করে আদি গঙ্গায় ডুব দিলেন ত্রিপুরা রাজ্যের এই বিধায়ক। সম্ভবত আগামিকাল তিনি তৃণমূলে যোগ দেবেন। এর আগে ত্রিপুরায় তৃণমূলের আন্দোলন সকলের জানা। সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মিছিলে অনুমতি না দেওয়া নিয়ে বিতর্ক তৈরি যায়। বিপ্লব দেবের বিজেপি সরকার করোনা বিধির কথা জানিয়ে অভিষেকের মিছিলে অনুমতি দেয়না।

এই ঘটনা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি। বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের সমালোচনায় সরব গেরুয়া বিধায়ক আশিস দাসের পদক্ষেপ সকলকে অবাক করে। ত্রিপুরায় আইনের শাসন নেই বলে জানান তিনি। পরে তাঁর বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় বইলেও তিনি নিজের বক্তব্যে অনড় থেকে যান । কালীঘাটে এসে বিপ্লব দেবের সমালোচনা করে বলেন , বিজেপিকে না হারানো পর্যন্ত তিনি মাথা ন্যাড়া রাখবেন ।

বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য বিপুল সাফল্য নিয়ে ক্ষমতায় আসার পর তৃণমূলের চোখ ত্রিপুরায়। বিজেপি শাসিত ত্রিপুরায় সংগঠন তৈরি করতে মরিয়া তৃণমূল। এই অবস্থায় বিজেপি বিধায়ক সত্যি যদি তৃণমূলে যোগ দেন তবে তা তৃণমূলের কাছে লাভ হবে বলে জানায় সকলে ।