কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

মুম্বইকে হারিয়ে দুর্দান্ত কামব্যাক কলকাতা নাইট রাইডার্সের ; হাফসেঞ্চুরি রাহুল ও আইয়ারের

Current India Entertainment Features Sports

এর থেকে ভালো কামব্যাক কলকাতা এর আর হতে পারে না । গতকাল খেলা দেখতে দেখতে শাহরুখ খানের ‘ হার কে জিতনে বালেকো বাজিগার কেহেতে হে ‘ , বিখ্যাত সংলাপটি মনে পড়ে যাচ্ছিল কলকতাবাসীর । সত্যি বলতে গেলে আইপিএলের প্রথম ভাগে খারাপ পারফরম্যান্সের পর দ্বিতীয় ভাগে কেকেআরের এই ভাবে ঘুরে দাঁড়ানো কোন সিনেমার চিত্রনাট্য থেকে কম নয় বৈকি আর সেই রুপোলি পর্দার সংলাপকেই সত্যি করে গতকাল মুম্বইয়ের মতো দলকে পরাজিত করল কলকাতা নাইট রাইডার্স ।

2021 সালের আইপিএল অনুষ্ঠিত হয় ভারতে এরপর অবশ্য করোনা মহামারীর কারণে প্রথম ভাগ স্থগিত হয়ে গেলে পয়েন্ট টেবিলের একদম শেষে বিরাজ করে কেকেআর ; তবে দ্বিতীয় ভাগ শুরু হওয়ার মূহূর্তেই যেন কোনো জাদুমন্ত্রে পারফরম্যান্স ফিরে পায় তারা । প্রথম ম্যাচে বিরাট বাহিনীকে হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচে সবাইকে অবাক করে দিয়ে রোহিত শর্মার মুম্বইকে সাত উইকেটে হারাল শাহরুখ খানের ছেলেরা । ম্যাচের প্রথম থেকে আগাগোড়া আধিপত্য বিস্তার করেছিল । প্রথমদিকে মুম্বইয়ের ব্যাটসম্যানরা হাত খোলা চালু করলেও পরবর্তীকালে কৃষ্ণা , বরুণ চক্রবর্তী এবং লকি ফার্গুসনের দুর্দান্ত বোলিং পারফরমেন্সের জেরে রোহিত শর্মা , পোলার্ড এবং পান্ডিয়ার মত তারকাখচিত ব্যাটিং লাইন আপকে মাত্র ১৫৫ রানে আটকে রাখে কলকাতা যদিও মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে ১৫৬ রানের টার্গেট যথেষ্ট কঠিন ছিল ; কিন্তু সেই অসম্ভব কাজকে সহজ করে তোলে সদ্য তার দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামা ভেঙ্কটেশ আইয়ার ।

কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

প্রথমদিকে গিল আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরলেও রাহুল ত্রিপাঠী এবং ভেঙ্কটেশের ব্যাটিংয়ের জোরে লক্ষ্যমাত্রার কাছে সহজে পৌঁছে যায় কেকেআর । দুই ব্যাটসম্যানই তাদের হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করায় বুমরাহ এবং বোল্ট সমৃদ্ধ মুম্বই বোলিং লাইনআপের বিরুদ্ধে মাত্র তিন উইকেট খুইয়ে প্রায় পাঁচ ওভার বাকি থাকতেই লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে যায় মরগ্যানের ছেলেরা । গতকালের এই জয়ের ফলে লীগ টেবিলে চার নম্বরে পৌঁছে গেল কেকেআর । আপাতত ৮ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে মুম্বইকে সরিয়ে প্রথম চারে স্থান করে নিল কলকাতা ।

তবে এখনো যে কাজটা অনেকটা কঠিন সেটা মানছে কেকেআর ম্যানেজমেন্ট । এখনো বাকি পাঁচ ম্যাচের মধ্যে অন্তত তিনটি ম্যাচে জেতা প্রয়োজন তবে কলকাতার তারুণ্যের ওপর ভর করে এবং মর্গ্যান ও রাসেল এর মত সিনিয়র প্লেয়ারদের সহযোগিতায় যে এবছরের আইপিএলে কলকাতা ভালো ফল করবে সে বিষয়ে আশাবাদী সকল কলকাতা ফ্যান ।