VoiceBharat News IMG 20211201 182521

জেএনইউ হোক বা কৃষিআইন বিরোধী আন্দোলন, সবেতেই সোচ্চার অভিনেত্রী স্বারা ভাস্কর। এদিন মুম্বইয়ে মমতা ব্যানার্জীকে আশ্চর্য ভঙ্গিমায় অভ্যর্থনা জানালেন তিনি। মঞ্চে উঠেই আবেগ মিশ্রিত গলায় বলে উঠলেন, “খেলা হয়েছে!” একটিমাত্র শ্লোগানেই বুঝিয়ে দেন বাংলার রাজনীতি সম্পর্কেও যথেষ্ট সচেতন তিনি।

VoiceBharat News swara bhaskar

পাশাপাশি অভিনেত্রী স্বারা এদিনের সভামঞ্চে একের পর এক প্রশ্নও শানিয়েছেন বাংলার রাজনৈতিক রঙ্গমঞ্চের নেত্রীকে। একদিকে জাভেদ আখতার, মহেশ ভাট, রিচা চাড্ডা প্রমুখ বলিউড তারকা সমন্বিত পরিবেশ — অন্যদিকে শরদ পাওয়ারের সাথে সাক্ষাৎকারের ঐতিহাসিক মূহুর্ত, সবমিলিয়ে মুম্বই রাজনীতিতে এ যেন এক পাল্টা হাওয়া! সফরের দ্বিতীয় দিনেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্বাগতম জানিয়ে অভিনন্দিত করে তুলল মহারাষ্ট্র।


অনুষ্ঠান মঞ্চে স্বারা ভাস্কর তাঁর জোরালো কন্ঠস্বরে উপস্থিত তারকাদের পরিচয় করিয়ে দিচ্ছিলেন বাংলার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে। স্বারা ভাস্করের উচ্ছসিত আলাপ হলভর্তি সকলেরই নজর কেড়ে নিচ্ছিল। এমনকি স্বয়ং জাভেদ আখতারও ‘থাম্বস’-এর ইশারায় তাঁকে অভিনন্দন জানান। শুধু এটুকুই নয়, স্বারা ভাস্কর বোঝানোর চেষ্টা করেন বিজেপি আমলে মুনাওয়ার ফারুকী এবং অন্যান্য শিল্পীদের কতটা প্রতিকূলতার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে।

স্বারা প্রশ্ন তোলেন কেন্দ্রের জনবিরোধী ইউএপিএ আইন নিয়ে। ‘Unlawful Activity Prevention Act’ এই আইনের অনৈতিক ব্যবহার নিয়ে মমতা ব্যানার্জীর মতামত জানতে চান তিনি। মমতা জবাবে বলেন, “আসলে এই আইন বিশিষ্ট জন বা সাধারণ নাগরিকদের জন্য তৈরি করা হয়নি”। সুধা ভরদ্বাজ সহ একাধিক সাম্প্রতিক উদাহরণও এই প্রসঙ্গে উঠে আসে, যাঁদের এই অমানবিক আইনের দ্বারা সরকার হেনস্থা করে এসেছে। পাশাপাশি মমতা জানান, তিনি কেন্দ্রের ক্ষমতায় এলে এই জনবিরোধী আইন প্রত্যাহার নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা নিশ্চয়ই ভাববেন। এরপরই মুম্বইয়ের সভামঞ্চে সেই উজ্জ্বল মূহুর্ত উপস্থিত হয়, যখন একের পর এক প্রশ্নের জবাব দেওয়ার পর মমতা ব্যানার্জী স্বারা ভাস্করকেই পাল্টা জিজ্ঞাসা করে বসেন, “আপনি রাজনীতিতে আসছেননা কেন? আপনার মতো দৃঢ়চেতা মহিলাদেরই তো আজকের রাজনীতিতে বিশেষ করে প্রয়োজন!”

VoiceBharat News Swara 16383535793x2 1


বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর এই প্রশ্নে স্বারা ভাস্করের প্রতিক্রিয়া, হলে উপস্থিত ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। স্বারার মুখ দেখে মনে হচ্ছিল, রাজনীতির চুম্বকীয় আকর্ষণ তাঁকে টানছে, শুধু সাড়া দেওয়ার অপেক্ষা।


অপরদিকে মুম্বইতে পৌঁছে মমতা ব্যানার্জী এবং এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার ব্যক্তিগতভাবে প্রায় ১ ঘন্টার জরুরি বৈঠক করেন, এবং দুজনে একসাথে সাংবাদিক সম্মেলনে অংশ নেন। সাংবাদিক সম্মেলনে মমতা বলেন, “শরদ পাওয়ার এবং উদ্ধব ঠাকরের সাথে দেখা করতেই মুম্বই এসেছিলাম, কিন্তু উদ্ধব ঠাকরে শারীরিক অসুস্থ তাই দেখা হলনা। তবে তাঁর দলের পক্ষ থেকে পুত্র আদিত্য ঠাকরে ও সঞ্জয় রাউত হোটেলে এসে দেখা করে গেছেন।”

এরপরই বিজেপি বিরোধী জোট প্রসঙ্গ উঠলে মমতা ব্যানার্জী জানান, “সারা দেশে আজ যে ফ্যাসীবাদি শাসন চলছে এর বিরুদ্ধে জোরালো বিকল্প শক্তি তৈরি করতে হবে। যেখানে যাদের যতটুকু শক্তি, তাদের মিলেমিশেই জোটবদ্ধ হতে হবে। শরদজি সিনিয়র লিডার, আমি তাঁর সাথে কথা বলেছি।”

VoiceBharat News 39716a26 3523 4232 a3b5 92931f75c69e 1638358037415 1638358047378


এই প্রশ্নোত্তর পর্বে সাংবাদিকদের কারো কারো মধ্যে একটা বিভ্রান্তি তৈরি হয় কংগ্রেসকে নিয়ে। বাংলার বাইরে বৃহত্তর রাজনীতি বলেই সম্ভবত এই বিভ্রান্তি– কংগ্রেস ছাড়াই কি এই জোটের কথা বলা হচ্ছে? উত্তরটা প্রবীন নেতা শরদ পাওয়ার নিজেই দিয়ে বলেন, “বিজেপির বিরুদ্ধে একটা বিকল্প শক্তির কথা আমরা বলছি। বিজেপিকে রুখতে, দেশের সমমনস্ক দলগুলোকে একত্রিত করতে হবে। পশ্চিমবাংলায় মমতার যে জয় হয়েছে তা মাটিতে দৃঢ়ভাবে দাঁড়িয়ে থাকার ফলেই হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা অনেক পরিশ্রম করে এই সাফল্য এনেছেন।”


শরদ পাওয়ারের ব্যখ্যায় এদিন তৃণমূল কংগ্রেসের মূল ভাবনাই ধরা দিয়ে গেল। তবে কি মুম্বইয়ের মাটিতেও ‘ঘাসফুল’-এর বীজ পুঁতে দিলেন মমতা? তীব্র আগ্রহে রাজনৈতিক মহল সেদিকেই তাকিয়ে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com