কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

শাস্ত্রীর পাশেই দাঁড়ালেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ

Current India Features Sports

ম্যানচেস্টারে ইংল্যান্ড – ভারত সিরিজের পঞ্চম টেস্ট বাতিল হওয়ায় তোপের মুখে পড়তে হয়েছিল হেড কোচ রবি শাস্ত্রীকে।
উল্লেখ্য, কোচ রবি শাস্ত্রী সহ ভারকীয় ক্রিকেট দলের আরও অনেকেই করোনা আক্রান্ত হন, যার ফলে পঞ্চম টেস্ট ম্যাচ বাঞ্চাল হওয়ার পরিস্থিতিই তৈরি হয়।


ক্ষুব্ধ বিসিসিআই স্পষ্টতই এর জন্য রবি শাস্ত্রীকেই দায়ী করে। বোর্ডের অভিযোগ ছিল অনুমতি না নিয়ে, কার্যত কোভিড সংক্রান্ত বিধি নিষেধ ভঙ্গ করেই লন্ডনের একটি বই প্রকাশ অনুষ্ঠানের গ্যাদারিংয়ে যোগ দিয়েছিলেন শাস্ত্রী ও কিছু ভারতীয় ক্রিকেটার।

কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304


এরপরই রবি শাস্ত্রী সহ অন্যান্য কোচরা করোনা আক্রান্ত হন। শেষে ফিজিও যোগেশ পরমারও আক্রান্ত হলে, দূরত্ব রাখার জন্যই ভারতীয় ক্রিকেটাররা টেস্ট ম্যাচ খেলতে অস্বীকার করেন। ফলে ম্যাচটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিতেই হয়।
রবি শাস্ত্রীর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে পারে বলেও জানিয়েছিল বিসিসিআই।


কিন্তু প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী অবশেষে হেড কোচ রবি শাস্ত্রীর সমর্থনেই এগিয়ে এলেন।
সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া বিবৃতিতে সৌরভ জানান, টেস্ট খেলতে না চাওয়ার জন্য ভারতীয় ক্রিকেটারদের দায়ী করা যায়না। তারা যখন জানতে পারেন ফিজিও করোনা পজিটিভ, তখন স্বাভাবিকভাবেই করোনার ভয়েই তারা টেস্ট খেলতে চাননা বলে পিছিয়ে আসেন।


শাস্ত্রী প্রসঙ্গেও সৌরভের স্পষ্ট ও আন্তরিক মতামত প্রকাশ পেয়েছে। হেডকোচ রবি শাস্ত্রী গোটা ব্যাপারটায় প্রত্যক্ষভাবে দোষী সাব্যস্ত হলেও তাঁর বিরুদ্ধে কোনোরকম পদক্ষেপ নেওয়া হবেনা, একথা সাফ জানিয়ে সৌরভ তার কারণও ব্যাখ্যা করেন।
সৌরভ বলেন,” হোটেলের একটা ঘরে দিনের পর দিন আবদ্ধ থাকা রীতিমতো কষ্টকর। মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে দেখলে এটা সত্যিই সম্ভব নয়”।


সাবধানতা অবলম্বন করেও, এমনকি দুটি টিকা নেওয়ার পরেও অনেকে সংক্রামিত হচ্ছেন, সে ক্ষেত্রে ব্যাপারটা কারোর হাতে নেই।
গোটা ব্যাপারটাকে আকস্মিক দুর্ঘটনা হিসেবে দেখার পক্ষেই মতামত দিয়েছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী।
পঞ্চম টেস্ট ম্যাচটি আপাতত স্থগিত রইল। আগামী বছর সেটা খেলা যায় যায় কিনা, ভাবনা চিন্তা করা হচ্ছে।