কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

শাহরুখ পুত্রের জন্য সুপ্রিম কোর্টে শিবসেনা : এনসিবির স্বচ্ছতা নিয়ে উঠল সন্দেহ

Current India Entertainment Features Politics

মাদক কান্ডে আরিয়ান খানের পক্ষে দাঁড়িয়ে এবার নার্কোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো(এনসিবি)-র ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলল শিবসেনা দল। এনসিবির কর্মপ্রক্রিয়া খতিয়ে দেখতে সুপ্রিম কোর্টে আর্জি জানালেন শিবসেনা নেতা কিশোর তিওয়ারি।

কিশোর তিওয়ারি


উল্লেখ্য, দশেরা উৎসবের দিনই প্রকাশ্য সভায় আরিয়ান প্রসঙ্গ ও মাদকচক্র ইস্যু নিয়ে সরব হয়েছিলেন উদ্ধব ঠাকরে। শিবসেনা তথা মহারাষ্ট্রের সরকারকে বদনাম করাই যে এনসিবির লক্ষ্য তা উল্লেখ করেন তিনি। বিজেপির ষঢ়যন্ত্রের কথাও সেদিন উদ্ধব ঠাকরে বলেছিলেন। “সরকার ফেলার চক্রান্তেই” যে বিজেপি এনসিবিকে দিয়ে এসব করাচ্ছে তার নিশ্চিত দাবি করেছিলেন তিনি।

কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304
উদ্ধব ঠাকরে


এবার সরাসরি এনসিবির সন্দেহজনক ভূমিকার স্বচ্ছ তদন্তের দাবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হল শিবসেনা। শিবসেনার সঙ্গী দল ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির নেতা নবাব মালিকের জোরালো দাবি, এনসিবির মুম্বই শাখার ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে আরিয়ান মামলার সাক্ষী হিসেবে নিজের বন্ধুদেরই বাছাই করেছেন। সুপ্রিম কোর্টের প্রতি আবেদনে কিশোর তিওয়ারি বলেছেন, “মুম্বইয়ের এনসিবি ও তাদের অফিসারদের বেআইনি ও নোংরা প্রতিহিংসা মূলক কাজকর্মের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই”।

আরিয়ান খান


বিগত ২ বছর ধরে এনসিবির শুধুমাত্র সেলিব্রিটি ও মডেলদের টার্গেট করে ধরা নিয়ে প্রশ্ন তুলে গোটা ব্যাপারের স্বচ্ছ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন কিশোর। এ প্রসঙ্গে বিশেষ বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের আর্জি জানিয়েছেন শিবসেনা নেতা।


সরাসরি কোনো দলীয় মতামতের সাথে সমর্থন পোষণ না করলেও, বলিউড সেলিব্রিটিরাই বারবার টার্গেট হচ্ছেন এ ব্যাপারে সহমত জাভেদ আখতারও। তিনি বলেছেন , “হাইপ্রোফাইল হওয়ার জন্যই মূল্য দিতে হচ্ছে ফিল্মি দুনিয়াকে”।


প্রসঙ্গত, এনসিবি ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ের স্ত্রী বলিউডে সফল না হওয়ায় প্রতিশোধ নিতেই বেছে বেছে টার্গেট করছেন এমন সন্দেহও কেউ কেউ প্রকাশ করেছেন। কাজেই শাহরুখ পুত্র আরিয়ানকে নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত বিভিন্ন মহল, আর মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতেও এর ব্যাপক প্রভাব পড়েছে সন্দেহ নেই।