VoiceBharat News images 64 2

দীর্ঘকাল লকডাউনে বন্ধ থাকার পর নতুন করে স্কুল খুলতেই অবাক শিক্ষক শিক্ষিকা। প্রচুর ছাত্রী অনুপস্থিত। খোঁজ নিতে গিয়ে দেখা গেল তাদের অনেকেরই ইতিমধ্যে বিয়ে হয়ে গেছে।
বাংলাদেশের কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার একটি স্কুলেই ঘটেছে এমন ঘটনা।


করোনা পাল্টে দিয়েছে সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন জীবনের অনেক কিছুই। এই অতিমারি চলাকালীন দীর্ঘ মেয়াদি লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জীবন ও জীবিকা। সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে শিক্ষা ব্যবস্থায়।


অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে কোনোরকমে পড়াশোনা চালু থাকলেও এটা যে একমাত্র সুরাহা হতে পারেনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করছিলেন অনেকেই। যেসমস্ত জায়গায় নতুন করে স্কুল খোলার পরিকল্পনা চলছে, দেখা যাচ্ছে ছাত্রছাত্রদের একটা বড় অংশই স্কুলে যেতে অনীহা প্রকাশ করছে। কেননা অনলাইনের অভ্যাস তাদের অনেককে ‘অফলাইন’ থেকে দূরে সরিয়ে দিয়েছে।
এই অবস্থা স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে। কিন্তু ‘সময় যে বয়ে যায় নদীর স্রোতের প্রায়’…


এর মধ্যেই বাংলাদেশের একটি স্কুলে ঘটল আরও এক ঘটনা, যা শিক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের হতবাক করে দিয়েছে। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার ‘বড়ভিটা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়’, একটানা দেড়বছর বন্ধ ছিল। নতুন করে স্কুল খুলতেই দেখা গেল প্রচুর ছাত্রীই একসাথে বেপাত্তা। জানা গেল তাদের মধ্যে ৮৫ জনের বিয়ে হয়ে গেছে!
এই ঘটনায় শিক্ষক শিক্ষিকারা রীতিমতো উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

VoiceBharat News 1608168164 5fdab2e4cd7d9 graphics

উক্ত বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিউর রহমান খন্দকার বলেন, “দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর আবার স্কুল খুলতেই ছাত্রীরা অনুপস্থিত দেখে বাড়ি বাড়ি খোঁজ নিতে গিয়েই বিয়ের বিষয়টি আমরা জানতে পারি”।
তিনি আরও জানান “এই স্কুলের মোট ৩৪৫ জন ছাত্রীর মধ্যে ৮৫ জনেরই বিয়ে হয়ে গেছে”।


সংখ্যাটা নেহাত কম নয়! দেখাদেখি অন্যান্য স্কুলগুলোও ছাত্রীদের বাড়ি বাড়ি খোঁজ নিতে শুরু করেছেন।
বড়ভিটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান
মো. খয়বর আলীর কথা থেকে জানতে পারা যাচ্ছে, এই এলাকায় বাল্য বিবাহের চল বেড়েছে। এলাকার মানুষকে এ বিষয়ে সচেতন করার জন্য প্রচার চালানো হবে, জানান তিনি।

VoiceBharat News IMG 20210925 133321

শুধু বাংলাদেশ কেন, এই পশ্চিমবাংলার গ্রাম ও মফস্বলে বিশেষ করে মেয়েদের তাড়াতাড়ি বিয়ে দেওয়ার চল এখনও রয়ে গেছে। স্কুলের সঙ্গে সম্পর্ক থাকা কালে তবু সেটা কিছু কম হয়।
কিন্তু করোনাকালে স্কুলের দরজা বন্ধ থাকায় মেয়েদের বাল্যবিবাহের দরজা আরও খুলে গেছে বলেই শিক্ষা বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com