কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

হাইকোর্টে অভিষেক – রুজিরার আর্জি খারিজ : এই মামলায় দিল্লী তলবের পূর্ণ অধিকার আছে, বলল ইডি

Current India Features Politics

কয়লা কেলেঙ্কারি তদন্তে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সেপ্টেম্বরের গোড়াতেই তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জী ও তাঁর স্ত্রী রুজিরাকে দিল্লীতে তলব করেছিল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডি।

উল্লেখ্য, গত ৬ সেপ্টেম্বর ইডির নির্দেশ অনুযায়ী অভিষেক ব্যানার্জী দিল্লীতে ইডির দফতরে হাজির হলেও অভিষেকের স্ত্রী রুজিরা দিল্লী যাননি। একটি চিঠি মারফত তিনি জানান — করোনা চলাকালীন অসুরক্ষিতভাবে সন্তানদের ফেলে রেখে দিল্লী যাওয়া রুজিরার পক্ষে অসম্ভব। ইডির তদন্তকারী অফিসার চাইলে কলকাতায় এসে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন, এমন কথাও চিঠিতে উল্লিখিত ছিল।

কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

৬ সেপ্টেম্বর দিল্লীতে ইডির দফতরে টানা ৯ ঘন্টা জেরার পরেও ২১ সেপ্টেম্বর পুনরায় হাজিরা দিতে বলা হয় সস্ত্রীক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে।


ইডির দফতর থেকে ওইদিন বেরিয়েই সংবাদমাধ্যমকে সমস্ত জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অভিষেক। এটা যে নিছক কেন্দ্রীয় সরকারের ষঢ়যন্ত্র, এটাও উল্লেখ করে অভিষেক বলেছিলেন শুধু শুধুই তাঁদের হেনস্থা করা হচ্ছে। কলকাতার মামলায় কেন বারবার দিল্লীতি হাজির হতে হবে এই প্রশ্নও তুলেছিলেন অভিষেক ও তাঁর স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই মর্মেই হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন অভিষেক ও রুজিরা।
হাইকোর্টের নিকট তাঁরা আর্জি জানান নির্ধারিত হাজিরার দিনটিকে যেন মকুব করা হয়, স্ত্রী রুজিরা ও সন্তানদের সুরক্ষার্থে প্রয়োজনে কলকাতাতেই জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্যও আবেদন জানিয়েছিলেন তাঁরা।

আজই ছিল দিল্লীতে হাজিরা দেবার সেই নির্দিষ্ট দিন। এই দিন হাজিরা না দিতে হলেও, কার্যত হাইকোর্ট অভিষেক – রুজিরার আবেদনে সম্মতি দেননি।


কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডির বক্তব্য ছিল আর্থিক তছরুপ জাতীয় কেলেঙ্কারির মামলায় দেশীয় এবং অন্তর্দেশীয় প্রভাব থাকতে পারে, কাজেই সেই মামলার তদন্তের জন্য কোনো নির্দিষ্ট এলাকায় তাকে আটকে রাখা যায়না।


অভিষেক ও রুজিরার আর্জি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্টের বিচারপতি যোগেশ খান্না। ২৭ সেপ্টেম্বর পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।