কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

হিন্দুস্তানকে তালিবান হতে দেবনা : বিরোধী দলের উদ্দেশ্যে বললেন মমতা

Current India Features Politics

একবালপুরে প্রচার সারলেন মমতা ব্যানার্জী। উপনির্বাচন আসন্নপ্রায়। কিন্তু এখন থেকেই প্রত্যয় – দিল্লী যাবার। তার আগেই রয়েছে ত্রিপুরা। প্রচার বক্তব্যে সেই প্রসঙ্গও উঠে এল।


এদিন একবালপুরে উপনির্বাচনের প্রচারে এসে মমতা ব্যানার্জী আরও একবার মনে করিয়ে দিলেন,–“আমরা কেউ মা বলি, কেউ আম্মি বলি। প্রয়োজনে একের শরীরে অন্যের রক্তদান,  এটাই হিন্দুস্তান “।

কম মুল্যে আপনার পন্যের বিজ্ঞাপন দিন অথবা খবরের মাধ্যমে প্রচার করুন আপনার ব্যাবসা, বিস্তারিত জানতে WhtasApp / Call 8585047304

বোঝাই যাচ্ছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দিকেই বক্তব্যের নিশানা ছিল তাঁর।


উল্লেখ্য, কালই বিজেপির নব্যনিযুক্ত রাজ্যসভাপতি তৃণমূল কংসকে তালিবানের সাথে তুলনা করেছেন।
তারই জবাবে আজ ইকবালপুর – খিদিরপুরে প্রচারসভায় বক্তব্য শানালেন মুখ্যমন্ত্রী। ব্যঙ্গাত্মক ভঙ্গি নয় একেবারে সরাসরিই বললেন,”হিন্দুস্তানকে কোনোভাবেই তালিবান হতে দেবনা। নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহকে দাদা ভাই বলে সম্বোধন করি — এটা আমাদের সৌজন্য। কিন্তু তাই বলে দেশকে টুকরো টুকরো হতে দেবনা”।


প্রকারান্তরে এ বার্তা আসলে বিজেপির ধর্মীয় বিভেদের রাজনীতিকেই আক্রমণ সেটা বক্তব্যে স্পষ্ট বোঝা যায়। আজ ইকবালপুরের সভায় সেই আগুনেই খানিকটা আঁচ তুলে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।


পাশাপাশি ভারতীয় মনীষিদের স্মরনেও মুখর হয়েছেন বাংলায় মেয়ে, রবীন্দ্রনাথের ভারত, বিবেকানন্দের ভারতের গৌরবকে সম্মান জানিয়ে তিনি বিজেপিকে সর্বস্তরে হারাবার জন্য যেন প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হলেন আজ।


প্রসঙ্গে উঠে এল ত্রিপুরাও। ত্রিপুরায় পূজোর সময় ১৪৪ ধারা জারি করার বিপক্ষে সরব হলেন মমতা।  এটা যে
ষঢ়যন্ত্র তা জানিয়ে মমতা জনতার দিকে প্রত্যয়ী ভঙ্গিতেই জানান,” আমরা বাংলায় লড়বো, ত্রিপুরায় লড়বো। বিজেপিকে হারাবো। ভোটের ময়দানে খেলা হবে”।
‘করবো,  লড়বো , জিতবো’ মন্ত্রেই ধ্বনিত হল ইকবালপুর।