images - 2022-05-18T191006.218

এপ্রিল মাসে পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের অভ্যন্তরে অনেকগুলি ঐতিহ্যবাহী উনুন ভেঙে ফেলে একদল দুষ্কৃতী। অভিযোগ উঠেছিল এমনটাই। পুরীর মন্দিরের এই উনুনগুলিতে প্রভু জগন্নাথের মহাপ্রসাদ রান্না করা হয়।


১২০০ খ্রীষ্টাব্দে নির্মিত এই সুপ্রাচীন উনুনগুলি ছিল মন্দিরের মূল্যবান সম্পদ। পবিত্র এই উনুনগুলি ভেশে ফেলায় চারিদিকে শোরগোল পড়ে যায়।

খবরসূত্র অনুযায়ী, মন্দিরের রান্নাঘর থেকে দক্ষিণ-পূর্ব দিকে ওই মাটির উনুনগুলি ছিল। প্রত্যহ প্রায় ২৪০টি উন্নয়ন জ্বলে ওঠে ভোগ রান্নার জন্য। অন্তত ১০ হাজার দর্শনার্থী এই ভোগ গ্রহণ করে থাকেন।


পরম উপাদেয় জগন্নাথ প্রভির মহাপ্রসাদে ঘি ভাত, মিষ্টি ভাত, জিরা রাইস, বিভিন্ন রকমের ডাল এবং পিঠে রান্না করা হয়। এছাড়া জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রার জন্য প্রতিদিন ৬০০ রাঁধুনি মিলে ৫৬ ভোগ রান্না করেন। এমন ঐতিহ্যশালী উনুনগুলি আচমকা ভেঙে ফেলার কারণটা কী? দ্বন্দ্বটা সেখানেই।

পুরীর মন্দিরে নিরাপত্তা রক্ষীদের নজর এড়িয়ে এমন ঘটনা ঘটল কীকরে! তা নিয়ে বিতর্ক জোরামো হয়ে উঠেছিল। এই ঘটনা কোনো এক দুষ্কৃতী ঘটিয়েছে গোড়ার এমন দাবি উঠলেও এই ঘটনায় যে ব্যক্তি গ্রেপ্তার হয়, জানা যায় সে আসলে মানসিক ভারসাম্যহীন।


জগন মহাপাত্র নামে ওই যুবকের পরিবার দাবি করেন তাঁদের ছেলে মানসিকভাবে অসুস্থ। তার এই রোগের মধ্যে একটি হলো বাতিকগ্রস্ততা। কোনো স্থান অপরিচ্ছন্ন রয়েছে এমন চোখে পড়লেই সে জায়গাটি সাফ করতে লেগে যান। তখন তাকে রোখা মুশ্কিল হয়ে দাঁড়ায়। পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের ররান্নাঘরেও ঠিক সেটাই ঘটেছিল। জায়গা পরিষ্কার করতে গিয়েই অনেকগুলি মাটির উনুন সে ভেঙে ফেলে। এটা অজান্তেই ঘটেছে বলে ধৃত জগনের পরিবার জানিয়েছেন।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com