IMG_20220527_154305

বিতর্কটা নিজেই শুরু করেছিলেন তসলিমা নাসরিন। নারী শরীরের আকৃতি নিয়ে ব্যঙ্গ বিদ্রূপ করতে গিয়ে এবার তিনি নিজেই নেটিজেনদের তীব্র কটাক্ষের শিকার হয়ে ডাহা হেরে ফিরলেন।

চিকিৎসক, লেখিকা তসলিমা নাসরিন সোশ্যাল মাধ্যমেও সমানতালে সক্রিয়। প্রতিদিনের স্ট্যাটাস, ছবি দেওয়া থেকে শুরু করে নায়িকাদের ব্যক্তিগত জীবন, ধর্ম, রাজনীতি প্রায় প্রত্যেকটি বিষয়ে মতামত ব্যক্ত করে থাকেন। তবে এবারের মন্তব্যটি তাকেই অপমানের চরম পর্যায়ে এনে ফেলল। তসলিমার পোস্ট নিয়ে নেটনাগরিকরা তুললেন বডি শেমিংয়ের অভিযোগ। কেবল তাই নয়, নেটিজেনদের হাসির খোরাক হয়ে গেলেন তিনি নিজেই।


সম্প্রতি একটি ফেসবুক পোস্টে তিনি লেখেন, “সুগোল সুডোল ফার্ম স্তন দেখতে আমার খুব ভাল লাগে। মেয়েরা স্তন দেখানো, ক্লিভেজ দেখানো জামা পরলে বেশ লাগে দেখতে। সুদর্শন পুরুষদের যেমন শর্টস পরলে বা সুঠাম বাইসেপ দেখানো স্লিভলেস টিশার্ট, বুকের লোম দেখানো ডীপ ভি নেক টিশার্ট পরলে দেখতে ভাল লাগে, তেমন মেয়েদের কিছুটা নিতম্ব ঝিলিক দেওয়া সুগঠিত পা দেখানো মিনি শর্টস পরলে, ক্লিভেজ বা অর্ধেক স্তন দেখানো, পেট এবং নাভি দেখানো ছোট টপ পরলে দেখতে বেশ লাগে।”


এইপর্যন্ত তাও ঠিক ছিল। এরপরেই তিনি লিখেছেন, “আজকাল কী যে হয়েছে, যার স্তন দেখতে ভাল নয়, স্যাগিং, বা প্রায় ফ্ল্যাট, তারাও, বিশেষ করে সাংস্কৃতিক জগতের সেলেব্রিটিরা ডীপ ভি নেক ড্রেস পরেন। কেন যে পরেন, কী দেখাতে, বুঝি না। আর বিশাল বপুর কুচ্ছিত পুরুষগুলোও আঁটসাঁট জামা পরে চললেন। চোখ সরাতে পারলে বাঁচি!”

তসলিমা নাসরিনের এহেন মন্তব্যের তীব্র আপত্তি তুলেছেন নেটিজেন সম্প্রদায়। কমেন্ট বাক্সে নিন্দা প্রতিবাদের ঝড় বয়ে যায়। যেমন একজন সরাসরি লিখেছেন, “আপনি যা বললেন, তা বডি শেমিং এর পর্যায়ে পড়ে। এমন কি যে বর্ণনায় আপনার কাছে সৌন্দর্য, সেগুলো তাঁদের না থাকলেও তাঁদের কাছে সেগুলো সৌন্দর্যপূর্ণ। তাঁদের সেগুলো শেয়ার করার আনন্দে আপনি চোখ ফিরিয়ে নিতে পারেন, সেটি প্রকাশ্যে লিখলে তাঁরা যে অপমানিত হয়, সে সংবেদনশীলতা আমাদের অবশ্যই থাকতে হবে।”

অন্যের শরীর নিয়ে ঠাট্টা বিদ্রূপের মতো লঘু ধরণের মজা এই লেখিকার কাছে সম্ভবত প্রত্যাশা করেননি কেউই। তাই তসলিমার কুরুচিপূর্ণ ফেসবুক পোস্ট ঘিরে নাগরিকদের আক্ষরিক প্রতিবাদ দেখা দিয়েছে। প্রচারের লোভ যে কোন স্তরে নামতে পারে সেটাই ইঙ্গিত করে তসলিমা নাসরিনের বক্তব্যের বিস্ফোরক প্রত্যুত্তর দিয়ে আচ্ছা করে বুঝিয়ে দিয়েছেন নেটানাগরিকবৃন্দ। কে কী পোশাক পরছে, কেমন করে কোথায় নিজেকে প্রদর্শন করছে এটা নিয়ে সমালোচনা করবার অধিকার তাঁকে কে দিয়েছে? সরাস‌রি সেই প্রশ্নই নেটিজেনরা রেখেছেন। তবে তসলিমা নাসরিনকে সেরা প্রশ্নটি করেছেন জনৈক নেটিজেন, যা প্রায় সব সমালোচনাকেই ছাপিয়ে গিয়েছে।


তসলিমার প্রশ্ন ছিল, “যার স্তন দেখতে ভাল নয়, তারা কেন ভি নেক ড্রেস পরেন বুঝিনা!” উত্তরে সেই ব্যক্তি পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়েছেন, “যে মহিলা পুরুষের মতো চুল রাখে, সে যে কেন শাড়ি পড়ে বুঝিনা! তার তো লুঙ্গি পরে মানুষের সামনে আসা উচিত!”
এই প্রশ্নটা কাকে কী উদ্দেশ্যে করা তা নিশ্চয়ই বলে দিতে হয়না! এই বক্তব্যের হাততালিতে কলকাতার প্রায় সমস্ত পায়রা উড়িয়ে ছেড়েছে!

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com