IMG_20220322_125728

একসময় ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন অশোক দিন্দা, আজ তিনি ময়নার বিজেপি বিধায়ক। কোলাঘাটে এক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানে গিয়ে তিনি জাতীয় সঙ্গীতের প্রতি চরম অবমাননা লক্ষ্য করেন। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে যা করলেন তিনি, বিধানসভার অন্যান্য সদস্যরাও তাঁর বাহবা দিচ্ছেন।


গত রবিবার কোলাঘাট শ্রীরামকৃষ্ণ সংঘ আয়োজিত একটি ফুটবল প্রতিযোগিতার ফাইনাল ম্যাচে অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত হয়েছিলেন ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা বিজেপি বিধায়ক অশোক দিন্দা। এই অনুষ্ঠানেই জাতীয় সঙ্গীত শুরু হওয়ার সাথে সাথেই যথারীতি সভামঞ্চে উঠে দাঁড়ান তিনি। কিন্তু তিনি দেখে অবাক হয়ে যান, দর্শকদের অনেকেই তখনও আসনে বসে! প্রথমত তাঁর মুখ থেকে ভাষা সরছিলনা, সাধারণ মানুষজন কি এই সাধারণ জ্ঞানটুকুও হারিয়ে ফেলেছেন, জাতীয় সঙ্গীত চলাকালীন উঠে দাঁড়িয়ে সম্মান প্রদর্শন করতে হয়!


এরপর মঞ্চে বক্তৃতা দিতে গিয়ে উদ্যোক্তাদের সামনেই সরাসরি বিষয়টি তুলে ধরেন অশোক দিন্দা। ক্ষোভ ঝরে পড়ে তাঁর গলায়। মাইক হাতে নিয়ে প্রথমেই দর্শকদের লক্ষ্য করে বিজেপি বিধায়ক বলেন, “একটু আগেই দেখলাম যখন জাতীয় সঙ্গীত হচ্ছিল, অধিকাংশ মানুষই বসেছিলেন। এটা দেখে ভীষণ কষ্ট পেয়েছি আমি। প্রথমে আমি একজন ভারতবাসী, তারপর আমি বাঙালি। সবাইকে জাতীয় সঙ্গীতের সম্মান করতে হবে। জাতীয় সঙ্গীতের গুরুত্ব উপলব্ধি করতে হবে।”


মঞ্চে দাঁড়ানো আমন্ত্রিত বিজেপি বিধায়ক ও প্রাক্তন ক্রিকেটারের এই বক্তব্য সরাসরি শুনে দর্শকদের মধ্যে অনেকেই তখন সঙ্কুচিত। অশোক দিন্দা সকলকে বোঝান, “অনেকেই হয়তো ভাবছিলেন দাঁড়ালে সিট চলে যাবে। আগে ভারতীয় হিসেবে ভারতের জাতীয় সঙ্গীতকে সম্মান জানানো আমাদের কর্তব্য। আমার অনুরোধ, এরপর যেখানে যখনই জাতীয় সঙ্গীত শুনবেন সেখানেই তার সম্মান করবেন।”
অশোক দিন্দার এই প্রকাশ্য উপদেশ শুনে উপস্থিত সকলে তো বটেই, তাঁর প্রশংসা করেছেন তাঁর দলের অন্যান্য বিধায়করা।

অশোক দিন্দা তাঁদের উদ্দেশ্যে বলেন, “দেশ ও জাতীয় সঙ্গীতকে আমাদের প্রত্যেকের সম্মান জানানো উচিত। কেউ যদি তা ভুলে যান, সহনাগরিক হিসেবে আমাদের পরস্পরের কর্তব্য একে অপরকে সেটা মনে করিয়ে দেওয়া।”

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com