IMG_20220319_172232

করোনার তৃতীয় ওয়েভ কিছুটা প্রশমিত হতেই শুরু হলো নতুন ভ্যারিয়ান্টের সংক্রমণের আশঙ্কা। এই মূহুর্তে চিন ও দক্ষিণ কোরিয়ায় উর্দ্ধহারে বেড়ে চলেছে করোনা সংক্রমণ। ভারতকেও সতর্ক থাকতে পরামর্শ দিল স্বাস্থ্যমন্ত্রক। করোনার নতুন এই ভাইরাসের প্রজাতি ওমিক্রনের মিউটেশনের ফলেই সৃষ্ট নতুন স্ট্রেন। তবে এই নতুন স্ট্রেনের কার্যকলাপ সম্পর্কে গবেষকরা এখনও সম্পূর্ণ ওয়াকিবহাল নন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য বুধবার একটি বৈঠকে দৃঢ়ভাবে সংক্রমণের মোকাবিলার কথা বলেছেন। যেহেতু অজানা স্ট্রেন, তাই সংক্রমণের গতিপ্রকৃতি পর্যবেক্ষণের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। বুধবারের এই বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যসচিব, জৈবপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব ও ড্রাগ কন্ট্রোলার বিভাগের জেনারেল। কেন্দ্রীয় ও আঞ্চলিক স্তরে প্রতিটি এলাকায় সংক্রমণের ওপর কড়া নজরদারির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


ইতিমধ্যেই সংক্রমণ মাত্রাতিরিক্ত ছাড়িয়েছে চিনের বেজিং ও শেনজেনে। দুটি শহরে মাত্র একদিনে সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৬,০০০! এছাড়াও পশ্চিম ইউরোপ, জার্মানি ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও ওমিক্রনের গ্রাফ উর্দ্ধমুখী। তারই মধ্যে ইজরায়েলে পাওয়া গিয়েছে ওমিক্রনের নতুন এক ভ্যারিয়েন্ট। বিশেষজ্ঞরা আন্দাজ করছেন ওমিক্রন বি.এ.(১) ও বি.এ.(২) দুটি প্রজাতি মিলেমিশেই নতুন এই ভ্যারিয়ান্টের উৎপত্তি।

ইজরায়েলের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে নতুন এই স্ট্রেনের গতিপ্রকৃতি সম্পর্কে এখনও গবেষকরা ওয়াকিবহাল নন। তাই এখনই তার তীব্রতা আন্দাজ করা যাচ্ছেনা। এক্ষেত্রে আগাম সাবধানতা খুবই জরুরি। WHO জানিয়েছে, যত শীঘ্র সম্ভব এই নতুন স্ট্রেন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানাবার চেষ্টা চলছে। তবে এই নতুন স্ট্রেন ওয়েভের আকার নেবেনা বলেই মনে করছে বিশ্বসংস্থা WHO.

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com