images - 2022-04-17T225902.726

আজকাল খাওয়া দাওয়া নিয়ে অনেকেই সচেতন। এই খাদ্যসচেতনতা একদিকে যেমন ডায়েট কিংবা চয়েস নির্ভর, তেমনই নিয়মকানুন-আচারপালনও অনেকক্ষেত্রে জড়িয়ে থাকে। এই খাদ্য বাছাইয়ে শুরুতেই আসে আমিষ ও নিরামিষের প্রসঙ্গ।


অনেকেই নিরামিষাশী হন। কোনও ধর্মীয় আচার পালনের আবশ্যিক অঙ্গ হিসেবেই হোক বা ডায়েট চার্ট ফলো করতে –আমিষ খাবার বর্জন করে চলেন। পুষ্টিগুণ হিসেবে আমিষ ভালো না নিরামিষ এই নিয়ে চিকিৎসকদের মধ্যে বিভিন্ন মত প্রচলিত রয়েছে। জেনেশুনে খাবারের পাতে আমিষ বা নিরামিষ বেছে নিতেই পারেন কেউ। মুশ্কিল হয় তখন, যদি কেউ নিরামিষ মনে করে আমিষ খান আর সেটা হয় সম্পূর্ণ অজান্তেই। আসুন জেনে নেওয়া যাক কিছু খাবারের নাম যার মধ্যে আদতে আমিষ থাকলেও সাধারণ লোকজন তাকে নিরামিষই মনে করে বসেন।


দুধ, দই, পনিরের মতো দুগ্ধজাত খাদ্য চিজকেও সাধারণত নিরামিষের মধ্যেই গণ্য করা হয়। অনেকেই জানেননা –চিজ তৈরি করতে ‘রেনেট’ নামে এক ধরনের উৎসেচক ব্যবহার করা হয়, যে পদার্থটি প্রাণীদের পাকস্থলী থেকে উৎপন্ন। যদিও সমস্ত চিজ প্রস্তুতকারকই এই পদ্ধতি ব্যবহার করেন কিনা সেটা নিশ্চিত করে বলা মুশ্কিল। তাই চিজকে সম্পূর্ণ নিরামিষ বলা যায় কিনা সংশয় রয়ে যাচ্ছে।


নানরুটি এবং লাচ্ছা পরোটা যদি নিরামিষ বলে কেউ চালানোর চেষ্টা করেন, তাহলে নিঃসন্দেহে ওগুলোর নাম করে আপনাকে অন্য জিনিস খাওয়ানো হচ্ছে। কেননা উৎকৃষ্ট নানরুটি ও লাচ্ছা পরোটা ডিম ছাড়া তৈরি করা যায়না। ময়দা মাখার উপকরণে যাকে আমরা ময়াম বলে থাকি তার মধ্যেই ডিমের গোলা দেওয়া হয়ে থাকে।

বেশকিছু ভোজ্য তেলে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের কথা বলা হয়। যেটা অনুল্লেখিত থাকে –এই ফ্যাটি অ্যাসিড সামুদ্রিক মাছের তেল থেকেই সংগৃহীত হয়।

খাবার ছাড়াও একধরণের খাবারতুল্য বস্তু, যার নাম চিউয়িং গাম –জেলাটিন সংমিশ্রিত যে জিনিসটি প্রায়ই সকলে চিবিয়ে থাকেন, রাবার জাতীয় এই আঠালো বস্তুটিও গবাদিপশুর চামড়া, লিগামেন্ট থেকেই পাওয়া উপাদানে তৈরি।

এছাড়াও কতগুলি সাধারণ খাবার রয়েছে যা নিয়ে আমিষ বা নিরামিষের বিতর্কের কথা তো সকলেই জানেন। মুসুর ডালে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন যুক্ত থাকায় এই ডালকে আমিষের তালিকায় ফেলেছেন অনেক মানুষ। তেমনই বিতর্ক পেঁয়াজ রসুন নিয়ে।

বাঙালিরা পেঁয়াজকে আমিষের তালিকায় ধরেন, কেন ধরেন এর পেছনে সঠিক কোনও যুক্তি নেই। আবার উত্তর ও দক্ষিণ ভারতীয়রা নির্দ্বিধায় পেঁয়াজকে নিরামিষ মনে করেই খান। সাধারণ যুক্তিতে গাছের ফল বা সব্জি আমিষ হওয়ার কথা নয়। তেমনই চিউয়িং গাম খাবার নয়। এক্ষেত্রে কোন সিদ্ধান্ত নেবেন সেটা একজন ব্যক্তির সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত মতের ওপরেই নির্ভর করছে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com