images - 2022-01-27T164137.024

প্রজাতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে রাজ্যের বিধানসভায় ভারতীয় সংবিধানের প্রবক্তা ডক্টর বি .আর.আম্বেদকরকে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়েই রাজ্যপাল রাজ্যসরকারকে নিশানা করে বলেন, “আইনের শাসন নয়, পশ্চিমবঙ্গে শাসকের আইন চলছে। বাংলায় গণতন্ত্র বিপন্ন, ভয়ের স্বর্গরাজ্য। ভোটারদের স্বাধীনতা নেই, ভোট পরবর্তী অশান্তিই তার প্রমাণ।” এদিন বিধানসভায় রাজ্যপালের এই বক্তব্যকে খোলাখুলি সমর্থন জানালেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।


রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সাথে রাজ্যসরকারের কূট সম্পর্ক পশ্চিমবঙ্গবাসীর অবিদিত কিছু নয়। উপরন্তু তিনি যে বিজেপি দলের প্রতি খানিকটা স্নেহসুলভ কৃপাদৃষ্টিই দিয়ে থাকেন, সাম্প্রতিক ঘটনাবলীর প্রতিফলন দেখে অনেকেই তা মনে করছেন। সুতরাং এদিন রাজ্যসরকারের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখতেই তা লুফে নিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।


রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, “সংবিধান নিয়ে কোনও ধারণা নেই। রাজ্যপালের কাছে দায়বদ্ধ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।” এই বক্তব্যে সমর্থন জানিয়ে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র কোথায়, সংবিধান কোথায় পালন করা হচ্ছে, এসব বিষয়েই রাজ্যপাল দৃষ্টি দিয়েছেন। আমি যা শুনেছি তাতে মনে হয়েছে উনি একটিও সংবিধানবিরোধী শব্দ উচ্চারণ করেননি। সংসদীয় ব্যবস্থাকে প্রশ্নের মুখে ফেলে এমন কিছু তিনি বলেননি।”


শুভেন্দুর আরো সংযোজন, “তাঁর (রাজ্যপালের) আইন সম্পর্কিত জ্ঞান নিয়ে আমার মনে হয় সারা দেশের কেউ প্রশ্ন তুলতে পারবেনা। উনি সুপ্রিম কোর্টের প্রবীন আইনজীবি। সুতরাং অভিজ্ঞতা থেকে উনি ভালোই বোঝেন কী করা উচিত আর কী নয়। রাজ্যপালকে কেউ নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননা।”

উল্লেখ্য, রাজ্যপালের সাম্প্রতিক কর্মপদ্ধতিকে অনেক ক্ষেত্রেই সংবিধান বিরোধী ও অনধিকার হস্তক্ষেপ বলে অভিযোগ করে আসছে তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন শুভেন্দু অধিকারী সেই বক্তব্যের প্রতিই কটাক্ষ করেছেন।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com