VoiceBharat News IMG 20220214 162939

থাপ্পড় শব্দ দিয়েও মারা যায়। বলিউডের ‘বিগড়ি বেটিকে’ তেমনই শব্দের চড় কষালেন আরেক অভিনেত্রী শাবানা আজমি। মনে করিয়ে দিলেন ‘ভারতবর্ষ এক ধর্মনিরপেক্ষ দেশ।’

VoiceBharat News images 2022 02 14T162316.491

কিন্তু দোষ কি শুধুই কঙ্গনা রানাওয়াতের! হ্যাঁ পাবলিক ফিগার হিসেবে নিশ্চয়ই তিনি জনসাধারণের ভাবনাকে রিপ্রেসেন্ট করেন, বিশেষ করে তিনি যখন শিল্পক্ষেত্রের গন্ডি ভেঙে সরাসরি বক্তব্য দিতে দাঁড়িয়ে পড়েন হাত তুলে। রাজনৈতিক সচেতন বলে পরিচিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের অবস্থা অনেকটা তাই। কিন্তু কোন জনসাধারণের প্রতিনিধিত্ব করেছেন কঙ্গনা? যারা বোঝেননা ‘পর্দাপ্রথার বিরোধিতা’ আর ‘ধর্মীয় অধিকারে হস্তক্ষেপ’ এক নয়! সেই জনসাধারণকে প্রতিনিধিত্বই করে তাদের ভ্রম সংশোধনের বদলে, তাদেরই ভ্রান্ত ভাবনাকে উস্কে দিচ্ছেন বিজেপি ঘনিষ্ঠ ‘ইতিহাসের ছাত্রী’ অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত?

VoiceBharat News images 2022 02 14T162130.083
বর্তমান পরিস্থিতি আঙুল দিয়ে দেখাচ্ছে, রাজনৈতিক নেতানেত্রীরা আসলে মানুষজনকে ‘ভেড়ার পাল’ মনে করে তাদের ভাবনায় কী গভীর প্রচ্ছন্ন প্রভাব ফেলে নিজেদের উদ্দেশ্য হাসিল করে থাকেন। আর ধর্মের মতো একটি স্পর্শকাতর বিষয় হলে তো কথাই নেই। ‘মুসলমান’ শব্দটা শুনলেই হলো! পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ইরান, ইরাক, তুরস্ক, কাশ্মীরের যেখা‌নে যত ‘ইসলামের’ নিদর্শন সবকিছুর বাপবাপান্ত উদ্ধার করে ছাড়বেন! আর সেইসব রাজনৈতিক দলের সামনে যখন একজন সুন্দরী সেলেব্রিটি দাঁড়িয়ে যান তাহলে তো কথাই নেই! তেমনই সাম্প্রতিক কর্ণাটক বিতর্কে উস্কানি দিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় চমক লাগাতেই হঠাৎ উদয় হয়েছিলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। এসে এমন একটি মন্তব্য করে বসলেন যার সাথে মূল ঘটনার কোনও সম্পর্কই নেই!

VoiceBharat News IMG 20220214 162658

দুটি ছবি পোস্টিয়ে কঙ্গনা আমাদের দেশের মুসলিম মেয়েদের উপদেশ দেন, “যদি সাহস দেখাতেই হয়, তবে আফগানিস্তানে গিয়ে বোরখা খুলে ঘুরে দেখান!” কঙ্গনা সম্ভবত পর্দায় ঘোড়া ছুটিয়ে, লম্ফঝম্প করে নিজেকে বাস্তবের মালালা ইউসুফজাই ভেবে বসেছেন! যা সত্যিকারের হতে ধক লাগে। ভারতের ইতিহাসের ছাত্রী কঙ্গনার কাছে প্রশ্ন করছেন জনসাধারণের একাংশ — তিনি নিজে একজন মেয়ে হয়ে একদল বখাটে বাঁদরের এই উন্মত্ত আচরণকে সমর্থন করলেন কীকরে? শিক্ষাপ্রাঙ্গনে একলা একটি বোরখা পরা মেয়েকে অতিষ্ঠ করে, তার ‘ইনফিরয়রিটি’কে’কে খুঁচিয়ে আল্লাহু আকবর বলে প্রতিবাদ জানাতে বাধ্য করার, ইচ্ছাকৃত ধর্মীয় সংঘাতে উস্কানি দেওয়াটাকে সুস্থ রুচির পরিচয় বলে মনে হলো কীকরে ‘থালাইভি’ অভিনেত্রীর? ভেবে শুধু শাবানা আজমিই নন, তাঁর ভক্তকুলের একাংশও রীতিমতো হতবাক বনে যাচ্ছেন।

VoiceBharat News images 2022 02 14T162140.023
কিন্তু জনগণের সচেতন মহলের খুব কিয়দংশই ‘মাইনরিটি’ সম্পর্কে সঠিক ধারণা পোষণ করেন। সংখ্যালঘু শুধুই সংখ্যা দিয়ে বিচার করা যায়না। পাক-প্রদেশে হিন্দুরা যতটা মাইনর, আমাদের দেশেও মুসলিমরা ঠিক তাই। তফাৎ শুধু ধর্মনিরপেক্ষ চেতনায়। কারণ ধর্মের ভিত্তিতে গঠিত রাষ্ট্রের কাছে উদারনীতি আশা করা যায়না। কিন্তু ভারতবর্ষ পাকিস্তান বা আফগানিস্তান নয়। যে ভারতবর্ষের সম্পূর্ণ ইতিহাস ভুলিয়ে একদল ধর্মান্ধ রাজনীতিবিদ যেই চেতনাকে ক্ষতিগ্রস্ত করার চেষ্টা করেই চলেছেন। বোরখা প্রসঙ্গে সেই কথাটাই কঙ্গনা রানাওয়াতকে মনে করিয়ে দিলেন অভিনেত্রী শাবানা আজমি। তিনি একটি সাধারণ এবং তীক্ষ্ণ প্রশ্ন রেখেছেন, “আমি যতদূর জানি, আফগানিস্তান ধর্মকেন্দ্রিক দেশ। আর ভারত ধর্মনিরপেক্ষ দেশ, তাই তো?” এর উত্তর দিতে গেলে কঙ্গনা রানাওয়াতের গাল চড়চড় করে উঠবে।

সিপাহী বিদ্রোহের ইতিহাস নিয়ে হয়তো গবেষণা করে থাকতে পারেন কঙ্গনা, তবে স্বল্প ইতিহাস চর্চায় ‘গান্ধী বনাম সুভাষ’ আর ‘গান্ধী বনাম গডসে’-র মধ্যে তফাৎ নিরূপণ করার সাধ্য তাঁর নেই। ইতিহাসচর্চার এই একমুখীনতার জন্যই কি ২০১৪ সালকে কঙ্গনা রানাওয়াত ভারতের স্বাধীনতা দিবস বলে মনে করেছেন? সেখানেই অনেকের সংশয়।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com