IMG_20220515_203449

তাজমহল নিয়ে বিতর্ক এখনও তুঙ্গে। ২২টি বন্ধ ঘরে হিন্দু দেবদেবীর মূর্তি লুকিয়ে রাখা হয়েছে এমনই জোরালো দাবি তুলে ঘর খোলাবার দাবি তুলেছিলেন বিজেপি নেতা রজনীশ সিংহ। যদিও ‘আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে’-র দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এলাহাবাদ হাইকোর্ট সেই দাবি নাকচ করে দিয়েছে। বিতর্ক তবু থামছেনা।


জয়পুর রাজপরিবারের কন্যা বিজেপি সাংসদ দিয়া কুমারীর দাবি জয়পুরের রাজা জয় সিংয়ের জমিতেই তাজমহল নির্মিত হয়। ওই জমি মুঘল সম্রাট শাজাহান দখল করে নিয়েছিলেন। দিয়ার বক্তব্য, “আমাদের কাছে নথি রয়েছে যে জমিটি জয়পুর রাজ পরিবারের। এই জমিটি শাজাহান অধিগ্রহণ করেছিলেন।”

দিয়া কুমারীর পাল্টা জবাব দিতে মঞ্চে হাজির হন ইয়াকুব হাবিবউদ্দিন টুসি। উল্লেখ্য, ইনি নিজেকে মুঘলদের বংশধর বলে দাবি করেছেন। এক ভিডিও মারফত দিয়া কুমারীর উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন টুসি। তাঁর স্পষ্ট দাবি ,”সত্যিই যদি তাঁর কাছে জমি সংক্রান্ত নথি থাকে, তবে তিনি তা প্রকাশ্যে আনুন।”

ইয়াকুব হাবিবউদ্দিন টুসি

মুঘল সম্রাট আকবরের নবরত্নসভায় ছিলেন মান সিংহ। জয়পুরের রাজপরিবার তাঁর সাথেই সম্পর্কিত। শুধু তাই নয়, জয়পুর রাজপরিবার নিজেদের ভগবান রামের বংশধর বলেও দাবি করেন এই পরিবারের সদস্যরা। প্রচলিত রয়েছে, জয়পুরের প্রাক্তন মহারাজা ভবানী সিং ছিলেন রামচন্দ্রের পুত্র কুশের ৩০৯তম বংশধর। সেই রাজা ভবানী সিং এবং পদ্মিনী দেবীরই একমাত্র সন্তান বিজেপি নেত্রী দিয়া কুমারী।

দিয়া কুমারী

উল্লেখ্য, যে ‘আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া’-কে তাজমহলের বন্ধ ঘর তদারকির আবেদন জানানো হয়েছিল সেই সংস্থাই হিন্দুমূর্তি থাকার দাবি নাকচ করে দিয়েছে, উড়িয়ে দিয়েছে ‘তেজো মহালয়া’ থিওরি।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com