VoiceBharat News images 2022 05 09T231132.093

‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ নিয়ে শুরু থেকে বিতর্ক কম হয়নি। ইতিমধ্যে ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিনেমাটি মুক্তির পর ৫০ দিন অতিক্রান্ত হয়েছে গিয়েছে। একদিকে চূড়ান্ত ব্যবসায়িক সাফল্য, অন্যদিকে বিস্তর নিন্দার শিকার হয়েছে এই ছবি। এখনও যা সমানতালে চলছেই। সম্প্রতি সেই বিতর্ক নতুন করে উস্কে দিল উইকিপিডিয়া।

VoiceBharat News 1647590557 vivek


অন্যান্য ছবির মতোই এই সিনেমাটিরও বিবরণ দেওয়া হয়েছিল উইকিপিডিয়ায়। তবে যে শব্দগুলি বিবরণে লেখা ছিল তাতেই তেলেবেগুনে জ্বলে উঠেছেন পরিচালক বিবেক অগ্নিহোত্রী।
‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ ছবির বিবরণে লেখা ছিল— ‘ছবিটির কাহিনি ১৯৯০-এর বিতারণের ঘটনাকে গণহত্যা হিসেবে দেখায়, যা বেশির ভাগের মতেই ভুল ভাবনা এবং যড়যন্ত্রমূলক তত্ত্বের ভিত্তিতে তৈরি।’

এই বক্তব্য নজরে আসতেই চটে যান বিবেক অগ্নিহোত্রী।তিনি ট্যুইটারে পেজটির স্ক্রিনশট শেয়ার করে উইকিপিডিয়ার উদ্দেশ্যে কটাক্ষ করে লেখেন,”তোমরা বিবরণে ইসলাম-আতঙ্ক, প্রচার, সঙঘী, ধর্মান্ধ-র মতো শব্দগুলো বসাতে ভুলে গিয়েছো। নিজেদের ধর্মনিরপেক্ষ পরিচয়কে নিজেরাই নষ্ট করছ তোমরা! তাড়াতাড়ি আরও সংশোধন করো!”

VoiceBharat News IMG 20220509 231637
সূত্র মারফত জানা গিয়েছে বিবেক অগ্নিহোত্রী এই এই ট্যুইটটি করার পরেই সাড়া পড়ে যায় উইকিপিডিয়ায়। ট্যুইটের পর ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ ছবির বিবরণ থেকে ‘ষড়যন্ত্রমূলক তত্ত্বের ওপর ভিত্তি করে তৈরি’ এই মন্তব্যটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৯০ সালে কাশ্মীর থেকে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের বিতাড়ন ও নির্যাতনের ঘটনা অবলম্বনে নিয়ে নির্মিত বিবেক অগ্নিহোত্রীর ছবি সম্পর্কে উদ্দেশ্য প্রণোদনা ও ভ্রান্ত, রঙ চড়ানোর তথ্যের অভিযোগ আগে থেকেই বহু সমালোচক করেছিলেন।যেমন খোদ কাশ্মীরি পন্ডিতদেরই একাংশ বিবেকের এই ছবির বিপক্ষে দাঁড়ান। উইকিপিডিয়া সম্ভবত তার দ্বারাই প্রভাবিত হয়েছিল বলে অনুমান করা যায়।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com