VoiceBharat News IMG 20220424 162311

হাতিবাগানের জনবহুল রাস্তায় আচমকা ধস! আচমকা এই খবর পেয়েই সেখানে পৌঁছে যান স্থানীয় পুলিশের প্রতিনিধিরা। এমন অভূতপূর্ব ঘটনা দেখে প্রত্যেকেই হতবাক বনে গিয়েছেন। প্রাথমিক খোঁজখবরে জানতে পারা গিয়েছে, কয়েকদিন আগেই রাস্তায় কাজ চলছিল। সেখানেই খোঁড়াখুঁড়ির ফলে বিভ্রাট ঘটতে পারে। তবে যানবাহনে পরিপূর্ণ এই জনবহুল রাস্তার ৬ ফুট এলাকায় আচমকা ধস নামতে দেখে মৃদু আতঙ্কে ভুগছেন স্থানীয় কলকাতাবাসী।

VoiceBharat News IMG 20220424 162343


হাতিবাগানের বিধানসরণীর এই অঞ্চলটি ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের আওতায় পড়ে। রাস্তার এতটা অংশ হঠাৎ ধসে যাওয়ায় যান চলাচলেও বিঘ্ন ঘটেছে। ফলে সত্বর এই রাস্তার মেরামতি প্রয়োজন। পর্যবেক্ষকের দায়িত্বে থাকা পুলিশ আধিকারিক বলেছেন, “রাস্তায় ধস দেখা দিতেই কলকাতা পুরনিগমে খবর পাঠানো হয়। দ্রুততার সঙ্গে আধিকারিকরা এসেছেন। কতটা কী হয়েছে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

VoiceBharat News IMG 20220424 162243
স্থানীয় মানুষজনের মতে এই এলাকায় কিছুদিন আগেই কাজ করবার জন্য খোঁড়াখুঁড়ি করা হয়েছিল। সেই কাজকর্মের গাফিলতির ফলেই এই ধস কিনা তা পর্যবেক্ষণ করে দেখা জরুরি। তবে আবহবিদরা এমন একটা পূর্বাভাস আগেই দিয়েছিলেন।

আবহবিদদের আশঙ্কা অবশ্য শুধু ওই এলাকা নিয়েই নয়। গত ১ বছরে বারংবার প্রাকৃতিক দুর্যোগ চলাকালীন তাঁরা পর্যবেক্ষণ করে দেখেছিলেন– আপাতদৃষ্টিতে বৃষ্টির জল রাস্তা থেকে নেমে গেলেও সেই জল মাটির তলায় ঢুকে যায়।

যেসব জায়গার মাটি ঝুরঝুরে, সেখানে সেখানে বৃষ্টির জল জমে রোদ্দুরে শুকোলেই মাটির বাঁধুনি আলগা হতে শুরু করে। এর ফলে কলকাতার বেশ কয়েকটি রাস্তায় ধস নামার প্রবণতা বাড়ছে –এমনই ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন আবহবিদরা। বিধাণসরণীর এই এলাকাটি সেই রাস্তাগুলির একটি কিনা তা আবহবিদরাই বলতে পারবেন। তবে এই ঘটনা সেই ভবিষ্যতবাণীর দিকে কিছুটা হলেও ইঙ্গিতের সম্ভাবনা তৈরি করে দিল।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com