IMG_20220513_164522

১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের টাকা অনাদায়, আবাস যোজনায় আর্থিক অসহায়তা ইত্যাদি একাধিক অভিযোগে সরব প্রতিবাদী শব্দে এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।


চিঠিটি লেখবার আগে বৃহস্পতিবার টাউনহলের উদ্বোধনী বক্তব্যেই কেন্দ্রকে লক্ষ্য করে কটাক্ষ তুলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।নতুনরূপে টাউনহলের উদ্বোধন করতে গিয়ে কেন্দ্রের প্রতি বঞ্চনার অভিযোগ তুলে কড়া ভাষায় সমালোচনা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর স্পষ্ট অভিযোগ, ‘কেন্দ্রীয় সরকার কেবলমাত্র বরাদ্দ টাকা দিচ্ছেনা তাই নয়, বরং উল্টে রাজ্যের টাকায় থাবা বসাচ্ছে।’ এবার সেইসকল অভিযোগগুলি লিখিত বয়ানে বিস্তারিত আকারে মোদীকে পাঠালেন মমতা।


১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের বরাদ্দ টাকা পাচ্ছেনা রাজ্যসরকার। এবিষয়ে অসুবিধা এবং অসন্তোষ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীকে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে হস্তক্ষেপের অনুরোধও জানিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। ২০২১ সালের ডিসেম্বর থেকে কেন্দ্রের টাকা বকেয়া পড়ে রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
কেবল তাই নয়, আবাস যোজনার নির্ধারিত টাকা দেওয়ার ব্যাপারেও অবহেলা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। মোদীকে লেখা চিঠিতে সেই অভিযোগ সরাসরি জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর চিঠির বয়ান অনুযায়ী, ‘আবাস যোজনায় পশ্চিমবঙ্গ এক নম্বরে থাকা সত্বেও এই ক্ষেত্রে অনুদান দিতে দেরি করছে কেন্দ্র।’ এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নজর আকর্ষণের চেষ্টা করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।


মুখ্যমন্ত্রীর আবেদন, এই টাকাগুলি দরিদ্র মানুষের পরিশ্রমের টাকা, যা থেকে তাঁরা বঞ্চিত হচ্ছেন। চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বিস্তারিত লিখে পশ্চিমবঙ্গের দরিদ্র অসংগঠিত শ্রমিকদের স্বার্থ তুলে ধরে, তাঁদের প্রাপ্য সম্পর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রণালয়ের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপের আবেদনও জানিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com