IMG_20220601_155125

এইমূহুর্তে সমস্ত সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে একজনেরই নাম –কেকে। কলকাতায় শো করতে এসে শো চলাকালীনই অসুস্থ হয়ে পড়া, এবং তার ঘন্টাকয়েকের মধ্যেই অপ্রত্যাশিত মৃত্যু! স্বাভাবিকভাবেই মেনে নেওয়া কঠিন হচ্ছে, তেমনই বিতর্ক উঠছে হলের অব্যবস্থা নিয়ে।

 

অনিয়ন্ত্রিত ভিড় , এসির বিকল হওয়া ইত্যাদি নানা বিষয় উঠে আসছে সঙ্গীতশিল্পী কেকে-র মৃত্যুর অনুষঙ্গে। এই ব্যাপারে মেয়র ফিরহাদ হাকিমের মতামত জানতে চাওয়া হলে সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া বিবৃতিতে তিনি পাব্লিকের ‘মাত্রাতিরিক্ত উচ্ছাসকেই মূলত দায়ী করেন।

IMG_20220601_153454

‘এসি চলছিলনা’ এই কথাটি ভুল বলে দাবি করছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। বাংলার এক বৃহত্তর সংবাদমাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, “কেকে-র মতো এমন পপুলার আর্টিস্ট আসছেন শুনে মাত্রাতিরিক্ত ভিড় হওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে নজরুল মঞ্চে এসি যথেষ্ট ভালো, আমরা গেলে কমাতে বলি। তবে যেখানে ২৭০০ লোকের ক্যাপাসিটি সেখানে ৭০০০ লোক হলে এসি কাজ করবেনা এমনটাই তো হবে!”

images - 2022-06-01T154257.339

অনুষ্ঠানের আগেই মেয়রের কাছে আবেদন এসেছিল গুরুদাস কলেজের প্রোগ্রামটিকে নিয়ন্ত্রণের জন্য। কেননা স্টুডেন্টের সংখ্যা এমনিতেই প্রচুর। পাস না পেয়ে কার্যত সুরক্ষাবলয় অগ্রাহ্য করে পাঁচিল টপকে ঢুকে পড়েছিল স্টুডেন্টরা। জানিয়েছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। কিন্তু এই ক্রাউডকে কন্ট্রোল করা গেলনা কেন?

এই প্রশ্নের উত্তরে ফিরহাদ হাকিম ববি জানান, “মাত্রাতিরিক্ত উচ্ছাস। সেকারণেই কন্ট্রোল করা যায়নি। অনুষ্ঠান দেখতে এসেছে, তাদের ওপর তো আর লাঠিচার্জ করা যায়না!” উভয় সংকট দেখা দিয়েছিল। সেকথাই বোঝাতে চেয়েছেন মেয়র। মাত্রাতিরিক্ত ভিড় ও কিছু মানুষের দায়িত্বজ্ঞানহীন আবেগের মূল্য চোকাতে হলো শিল্পীকে?

মেয়র ফিরহাদ হাকিমের মতে, “এটা নিয়ে বিতর্কের সুযোগ রয়েছে, যাঁরাই সুযোগ পাবেন সেটা করবেন। তবে আসল হলো ভাগ্যলিখন। কার কখন হার্টবিট বন্ধ হয়ে যায় কিচ্ছু আগে থেকে বলা যায়না।”

উল্লেখ্য ইতিমধ্যেই কেকে -র ছবিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

IMG_20220601_153534

নিজে দাঁড়িয়ে থেকে গান স্যালুটের উদ্যোগ ও আয়োজন করেছেন। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী ময়না মদন্তের প্রক্রিয়া শেষ হলে বিকেল আনুমানিক সাড়ে ৫টায় শিল্পীর উদ্দেশ্যে রাজ্যসরকারের পক্ষ থেকে গান স্যালুট দিয়ে তাঁর মরদেহ মুম্বইয়ের আত্মীয় স্বজনদের হাতে অর্পন করা হবে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com