VoiceBharat News IMG 20220112 142348

এবার ভারত সরকারের সংখ্যালঘু নীতির দিকে সরাসরি আঙুল তুললেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ডিসেম্বরে হরিদ্বারে আয়োজিত ধর্ম সংসদ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নীরবতাকেই মূলত কটাক্ষ করেছেন তিনি। যদিও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর এই সমালোচনাকে বিশেষ আমল দিচ্ছেনা ভারত সরকার। দিল্লী সূত্রের বক্তব্য, অন্যের ব্যাপারে নাক না গলিয়ে পাকিস্তান নিজের ‘ইসলামাবাদ’ নিয়ে ভাবুক।

VoiceBharat News IMG 20220112 150326


১১ জানুয়ারি পরপর দুটি ট্যুইট করে ধর্ম সংসদকে কটাক্ষ করেছেন ইমরান খান। তিনি বলেছেন, “ডিসেম্বরে একটি মৌলবাদী হিন্দু সম্মেলনে ভারতের সংখ্যালঘুদের বিশেষ করে কুড়ি কোটি মুসলিমকে গণহত্যার আহ্বান নিয়ে মোদী সরকারের ধারাবাহিক নিস্তব্ধতাই প্রশ্ন তুলছে, বিজেপি সরকার ওই গণহত্যার আহ্বানকে সমর্থন করে কিনা! বিষয়টিকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নজরে আনার সময় এসেছে।”

VoiceBharat News IMG 20220112 142243
অপর ট্যুইটে পাক প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, “মোদী সরকারের চরমপন্থী আদর্শ অনুযায়ী ভারতের সমস্ত ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে হিন্দুত্ববাদীরা নিশানা করেছে। মোদীর চরমপন্থী কর্মসূচি গোটা অঞ্চলের শান্তির জন্য বিপজ্জনক।”

ধর্মসংসদ নিয়ে ইমরান খানের অভিযোগ সত্য, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর এব্যাপারে নীরবতার অভিযোগকেও উড়িয়ে দেওয়া যায়না। তবে এই বিষয়ে পাকিস্তানের হস্তক্ষেপে ক্ষুব্ধ দিল্লী মহল।

VoiceBharat News IMG 20220112 142302
বিজেপি সরকারের মতে, পাকিস্তানের সংখ্যালঘু হিন্দু, খ্রিস্টান ও অন্যান্য ধর্মীয়দের অবস্থা কী, আগে পাকিস্তান সরকার সে ব্যাপারে নিশ্চিত করুক। ভারতকে নিয়ে না ভাবলেও চলবে। পাকিস্তানেও যে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন, জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করানোর মতো ঘটনা ঘটছে, সেকথাই পাল্টা মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে।
কার্যত পাকিস্তানের অভিযোগকে তাদের দিকেই ঘুরিয়ে দিয়েছে ভারত। তবে এবারও যথারীতি হরিদ্বারের হিংসাত্মক ‘ধর্ম সংসদ’ নিয়ে দিল্লীর তরফে কোনও বার্তা পাওয়া যায়নি।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com