IMG_20220525_225803

লুকিয়ে চুরিয়ে গোপন প্রেমের সুখ নিতে গিয়ে প্রাণ খুইয়ে বসলেন এক প্রৌঢ় প্রেমিক। মারা গিয়েই ধরা পড়ে গেল গোপন অভিসার। কেলেঙ্কারির কথা শুধু তিনিই জানতে পারলেননা, এছাড়া জেনে গেল গোটা দুনিয়াই! তবে মৃত্যুর কারণ এখনও রহস্যাবৃত। কী বলছেন তাঁর অভিসারের সঙ্গিনী?

প্রতীকী ছবি

মুম্বইয়ের কুরলা হোটেলে গত সোমবার ঘটনাটি ঘটে। হোটেলের রুম বুক করাই ছিল। গোপন সুখে মত্ত হতে বছর ৪০-এর সঙ্গিনীকে নিয়ে সকাল ১০টা নাগাদ হোটেলের ঘরে চলে যান ৬১ বছরের বৃদ্ধ। এর কিছুক্ষণ পরেই ঘটে যায় অঘটন।

হোটেল কর্তৃপক্ষের মতে, রুমে যাওয়ার কিছু সময় পরেই মহিলা ইন্টারকমে ফোন করে ভয়ার্ত কন্ঠে ডাকাডাকি করে জানান তাঁর সঙ্গী অজ্ঞান হয়ে গিয়েছেন।
হোটেলের কর্মচারীরা তড়িঘড়ি রুমে গিয়ে দেখেন, মেঝেয় বিবস্ত্র অবস্থায় এলিয়ে পড়ে রয়েছেন বৃদ্ধ। হসপিটালে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা মৃত ঘোষণা করেন।

প্রতীকী ছবি

এরপর ওই মহিলা সঙ্গিনীকে কুরলা পুলিশ স্টেশনে জেরা করার জন্য ডাকা হয়। সঙ্গিনী মুম্বইয়ের ওরলিতে থাকেন বলে জানা যায়। একটি প্রাইভেট কোম্পানীতে চাকরি করেন। প্রৌঢ়কে নিজের প্রেমিক বলেই অকুন্ঠিত পরিচয় দিয়ে একান্তে সময় কাটানোর বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

হোটেল কর্তৃপক্ষও একেবারে সরল স্বীকারোক্তি করে জানিয়েছে, এমন অনেক যুগল এসেই তাঁদের হোটেলে রুম ভাড়া নিয়ে থাকেন! সেইভাবেই ‘নিয়ম মেনে’ অর্থাৎ ‘ফরম্যালিটি’ সম্পূর্ণ করে এই যুগলও ঘর বুক করেছিলেন। যদিও এই ‘ফরম্যালিটি’ সম্পর্কে পুলিশ কোনও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কিনা সেটা জানা যায়নি। সাধারণভাবে সঙ্গম করাকালীন অত্যধিক উত্তেজনাবশত মৃত্যু, এমনটাই অনুমান করা যাচ্ছে। তবে মৃত্যুর সঠিক কারণটা পোস্টমর্টেম রিপোর্ট পেলেই জানা যেতে পারে।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com