IMG_20220326_161540

সম্প্রতি রামপুরহাটের বগটুই অগ্নিকান্ডে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল হাইকোর্ট। এপ্রসঙ্গে তৃণমূলের রাজ্যসম্পাদক কুনাল ঘোষ এবং রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম কিছু প্রশ্ন তুলেছেন। যদিও সিবিআইকে সহযোগিতার পূর্ণ আশ্বাস দিয়েছেন দুজনেই।


সিবিআই তদন্ত প্রসঙ্গে ফিরহাদ হাকিম বলেন , “সিবিআই আলাদা করে কী করবে জানিনা। সিট তদন্ত অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছিল। কোর্টই এর আগে সিবিআইকে তোতাপাখি বলেছিল। সেই আদালতেরই নির্দেশ যখন, কিছু বলার নেই।”


পাশাপাশি কুনাল ঘোষের বক্তব্য, “রামপুরহাটে যা যা করনীয় ছিল করা হয়েছে। সমস্তরকমের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এরপরেও আদালত যখন নির্দেশ দিয়েছেন আমরা তদন্তে সহযোগিতা করব।” সাথে সাথে কুনাল এটাও বলেন, “অতীতে রবীন্দ্রনাথের নোবেল চুরি থেকে , নন্দীগ্রাম গণহত্যা সমস্ত তদন্তের ভারই সিবিআইয়ের ওপর ন্যস্ত ছিল। তার ন্যায়বিচার এখনও অধরা।” প্রশ্ন তুলেছেন কুনাল, “দিল্লীতে যখন দাঙ্গায় মৃত্যু হয় মানুষের, উন্নাও, লখিমপুরে অন্যায় ঘটে, তখন সিবিআই তদন্ত হয়না কেন?”


বিজেপি নেতাগণ ও রাজ্যপালেের ভাবভঙ্গি দেখে সিবিআই তদন্তের কথা আগাম বুঝতে পারা যাচ্ছিল বলেই জানান কুনাল ঘোষ। একইসঙ্গে আদালতের নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে তিনি বলেন, “সহযোগিতা করব। কিন্তু যদি আমরা দেখি ন্যায়বিচার হয়নি, নির্দিষ্ট গন্ডি পেরিয়ে প্রতিহিংসার রাজনীতিই করা হচ্ছে, তাহলে প্রতিবাদ ও গণআন্দোলন হবেই। সিবিআই নিরপেক্ষ নয়, সিবিআই বিজেপির পক্ষে। কারণ অতীতে আমরা দেখেছি বিজেপিতে যোগ দিলে সিবিআই কোনও ব্যবস্থা নেয়না।” এব্যাপারে উদাহরণ হিসেবে শুভেন্দু অধিকারীর নামটি ছুঁয়ে যান কুনাল ঘোষ।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com