VoiceBharat News IMG 20220121 172412

আবারো উচ্চারণে বিভ্রান্তি! এবারের ভুলটা মারাত্মক। ভরা সভায় কেন্দ্রীয় প্রকল্পের ধরা বাঁধা শ্লোগান বলতে গিয়ে মুখ ফস্কে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, তাই নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়। ব্রহ্মকুমারীর বক্তৃতার ভিডিও এখন রীতিমতো ভাইরাল। সোশ্যাল মাধ্যমে একাধিক মিমের বন্যা!

VoiceBharat News IMG 20220121 172349


এর কিছুদিন আগেই এক আন্তর্জাতিক সভায় টেলিপ্রম্পটার অনুসরণ করে বক্তৃতা দিতে গিয়ে ভুল উচ্চারণের ফলে প্রবল সমালোচিত হয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। আর এবারে তাঁর নিজেরই কাঙ্খিত প্রকল্পের নাম বলতে গিয়েই এতবড় একটা ভুল?
ব্রহ্মকুমারী আয়োজিত বৃহস্পতিবারের ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব সে স্বর্ণিম ভারত কি ওউর’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় ভারতের কেন্দ্রীয় প্রকল্প ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ বলতে গিয়ে ফস করে বলে বসেছেন, ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পটাও!’

VoiceBharat News IMG 20220121 172307
ব্যস! সেকেন্ডের এই ভিডিও ক্লিপ মূহুর্তে ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়ে নেটমাধ্যমে। সাথে সাথে কটাক্ষ আর মিমে ভরে ওঠে সোশ্যাল মাধ্যম। ট্যুইটারে ট্রেন্ডিং মিমগুলোর মধ্যে জনৈক লিখেছেন, “বেটি বাঁচাও, বেটি পটাও এখন বিজেপির শ্লোগান। ওই দলটার থেকে এর বেশি কিছু আশা করা যায়না।”

একজন আবার রাহুল গান্ধীর ছবি দিয়ে ক্যাপশনে লিখেছেন, “কেউ আমার জন্য অবিলম্বে পাত্রী দেখার বন্দোবস্ত করুন।” কেউ আবার তুলে এনেছেন নরেন্দ্র মোদীরই বলা ‘দিদি ও দিদি ‘ প্রসঙ্গ। লিখেছেন, “যিনি সভামঞ্চ থেকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে ওভাবে টিটকিরি মারতে পারেন, তিনি যে তাঁর দলের অন্যান্য সদস্যদের এই পরামর্শই দেবেন এতে আর আশ্চর্যের কী!”

নেহাতই উচ্চারণের ভুলে এবার চরম অপদস্থের শিকার হয়ে গেলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে এই ধরনের ভুলকে টেলিপ্রম্পটারের ওপর ছেড়ে দিতে নারাজ অনেকেই। যে প্রকল্পটির নাম তথা শ্লোগান একাধিকবার উচ্চারিত, সেখানে এই ধরনের ভুল কাম্য তো নয়ই! বরং একেবারেই অপ্রত্যাশিত বলেই অধিকাংশ লোক মনে করছেন।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com