VoiceBharat News IMG 20220309 140909

আজকাল হাসপাতাল শব্দটাই মধ্যবিত্তের কাছে শঙ্কার কারণ হয়ে উঠেছে। চিকিৎসা যে একটি পরিষেবা, সেটাই ভুলতে বসেছে মানুষ। সরকারি হাসপাতালগুলিতে আগের চাইতে পরিকাঠামো অনেকটা উন্নত হলেও, রোগীর পরিবারের কাঙ্খিত সবটা সেখানে পাওয়া যায়না। তাই ঘটিবাটিমাটি চাঁটি করেও ছুটতে হয় প্রাইভেট হাসপাতালে। রোগীর যদি অতিসংকটজনক অবস্থা হয় তাহলে তো কথাই নেই। তার মানেই আইসিইউ। তার মানেই চড়চড় করে বাড়তে থাকবে হাসাপাতালের খরচের বিল!

VoiceBharat News images 2022 03 09T140711.462


এই পরিস্থিতির সম্মুখীন অনেককেই হতে হয় প্রতিনিয়ত। রোগীর বাড়ির লোকজন ক্ষুব্ধ হন। এই ক্ষোভ যুক্তিযুক্ত। আর এই ক্ষোভের কথা ডাক্তারদেরও অজানা নয়। সম্প্রতি পঞ্চসায়রে আয়োজিত চিকিৎসকদের একটি সম্মেলনে উঠে এল সেই প্রসঙ্গ। কেন আইসিইউতে রাখলে এত বিল বেড়ে যায়? প্রশ্নের উত্তরে দুএকটি কারণ দেখালেন এক চিকিৎসক।

‘International Clinical Nutrition Update 2022’ শীর্ষক এই সম্মেলনে ড.অজয় সরকার এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে বলেন, “প্রোটিন এক অত্যন্ত জরুরি উপাদান। যেকোনো অসুখ থেকে সেরে উঠতে প্রোটিন আমাদের শরীরে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ইন্টেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে যাদের রাখা হয়, তাঁদের শরীরে প্রোটিন মূলত নিঃসৃত হয় দেহে স্টোর থাকা প্রোটিন থেকে। তবে সেটাই তো পর্যাপ্ত নয় তাই প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন দরকার হয়। এইসব রোগীদের তাই দেওয়া হয় হাইপ্রোটিন ডায়েট।”

VoiceBharat News IMG 20220309 140531
হয়তো অনেকেই চিকিৎসার ক্ষেত্রে ওষুধ ইঞ্জেকশান এই দিকটার কথাই সাধারণত ভাবেন। তবে সঠিক পথ্য অর্থাৎ ডায়েটও যে সমান জরুরি সেটাই ধরিয়ে দিলেন ড.অজয় সরকার। তিনি জানান, এই ডায়েট হলো থেরাপিউটিক ডায়েট। আইসিইউতে থাকা রোগীদের চিকিৎসার বিল এত বেশি হবার এটাই একমাত্র কারণ না হলেও, এটাই একটা বড় কারণ বলে জানান তিনি।

ড.সরকার বলেন, “আইসিইউতে রাখা পেশেন্টদের ক্ষেত্রে একটা বড় সমস্যা হল, তাঁদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটাই কম থাকে। অনেক ক্ষেত্রেই তাঁরা ইমিউনো-কম্প্রোমাইজ়ড হন। তাই সাধারণ রান্নাঘরে তৈরি করা খাবার খেলে শরীরে নানাপ্রকার জীবাণু সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে। তাই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তাঁদের ফর্মূলা ফুড দেওয়া হয়। তার ফলে খরচ অনেকখানিই বেড়ে যায়। আইসিইউতে থাকা রোগীদের চিকিৎসার বিল অত বেশি হবার আরো কারণ থাকতে পারে, তবে এর সবচেয়ে বড় কারণ হল –ফর্মূলা নির্মিত ডায়েট।” এমনটাই জানালেন ড.অজয় সরকার।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com