VoiceBharat News IMG 20220121 161110

জনপ্রিয় তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। জীবদ্দশাতেই যাঁর বায়োপিক একজন নয়, তিনজন বানাতে চেয়েছেন। তার একটিতে মদন মিত্র নিজেই অভিনয় করবেন নিজের ভূমিকায়, এমনটাই খবর। তিনিই এমূহুর্তে বাংলার সবচেয়ে গ্ল্যামারাস পলিটিশিয়ান। সেই ‘কালারফুল’ নেতা মদন মিত্রই এবার এক চরম সিদ্ধান্ত নিলেন।

VoiceBharat News madan mitra thanos


তৃণমূল নেতা ঘোষণা করলেন, আগামী ৬ মাস তিনি ফেসবুক থেকে সরে যাবেন। এমনকি ফেসবুক লাইভ, ইনস্টাগ্রাম — সোশ্যাল মিডিয়ার কোনওরকম অ্যাক্টিভিটিতেই আর দেখা যাবেনা তাঁকে। এই ঘোষণা শুনে বাংলার মানুষের হার্টবিট স্তব্ধ হয়ে যাবার জোগাড়! মদন মিত্র আর ফেসবুক লাইভ , এই দুটোই যে সমার্থক, একে অপরের পরিপূরক। সেই মদন হঠাৎ এমন সিদ্ধান্ত নিলেন কেন?

VoiceBharat News Madan16 16424214723x2 1
কামারহাটির বিধায়ক জানালেন, “আমার কাছে নির্দেশ এসেছে বেশি ফেসবুক করলে ফেস নষ্ট হয়ে যাবে। তাই আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত আমার ফেসবুক খতম। কোনো আন্দোলন, ঘটনা, অনুষ্ঠান বা দলের প্রচার হলে টিম প্রচার করবে। আমি দলের নির্দেশ মতো চলব।”

বড়সড় কোনও ঘটনা ঘটেছে কি? মদন মিত্র বলেছেন, “না আমার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ ওঠেনি।সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনও সমস্যার মুখেও পড়তে হয়নি। তবে নির্দেশ এসেছে, মদন তুমি ফেসবুক ছেড়ে দাও। বেশি সোশ্যাল মিডিয়া করলে তোমার গ্ল্যামার নষ্ট হয়ে যাবে।”

VoiceBharat News IMG 20220121 160356

কিন্তু অগনিত ভক্তমন্ডলী! তাদের কী হবে? তাদেরও কি অপেক্ষা করতে হবে পর্দার মদন মিত্রকে দেখার জন্য? এ কেমন অবিচার! এই প্রশ্নেও নিজের গাল চমকানো হাসি উপহার দিয়ে সলজ্জভাবে জানিয়েছেন, “তৃণমূল কংগ্রেসই আমার কাছে শেষ কথা। দলের জন্যই লোকে আমার ফেসবুক, ইনস্টা দেখে। মদন মিত্র বলেও দেখেনা, এমএলএ বলেও নয়। তৃণমূলের লক্ষ লক্ষ কর্মীদের মতোই আমার কথা শোনে।”

VoiceBharat News IMG 20220121 160311
এই কথায় মদন মিত্রের বিনয় প্রকাশ পেলেও কথাটা হয়তো সত্যি নয়। মদন নিজেও জানেন, তৃণমূলের লক্ষ লক্ষ কর্তীরা মদন মিত্রের মতো জনপ্রিয় নয়। তবু, আপাদমস্তক দলের জন্য উৎসর্গীকৃত বিধায়ক মদন মিত্র দলের জন্যই এত বড় একটা স্যাক্রিফাইস করলেন!

বললেন, “মদন মিত্র এখন থেকে আর ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম করবেনা। তবে কোনও প্রোগ্রাম, দলের কোনও আন্দোলন বা প্রচার হলে আমার ডিজিটাল টিম শেয়ার করবে। এর বাইরে সোশ্যাল মিডিয়ার আর আমায় সক্রিয়ভাবে দেখা যাবেনা।”

VoiceBharat News মিত্র 16410943033x2 1
তবে এই সিদ্ধান্ত দলের নির্দেশেই কিনা এবিষয়ে অনেকে সংশয় প্রকাশ করেছেন। কথিত আছে, মহানায়ক উত্তম কুমার এই ফর্মূলা মেনে চলতেন। বিয়েবাড়িতেও পৌঁছতেন মধ্যরাতে। লোকে যাতে দেখতে না পায়। এবার কি তবে সেই পথেই হাঁটতে চললেন মদন মিত্র!

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com