IMG_20220523_123226

কমল পেট্রোল-ডিজেলের দাম। সেই আবহেই জ্বালানির ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধি ও মূল্য হ্রাসের জন্য সম্পূর্ণত কেন্দ্রকেই দায়ী করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসম্পাদক কুনাল ঘোষ। তাঁর বক্তব্য, “কেন্দ্র যদি দাম কমাতে পারে, তাহলে বাড়ানোর দায়ও তাদেরই হাতে।”


জ্বালানি নিয়ে বিগত অনেকগুলি মাস ধরেই কেন্দ্র-রাজ্যের চাপানউতোর চলেছে। কেন্দ্র দুষছে রাজ্যকে, রাজ্য কেন্দ্রকে। গত দীপাবলির সময়ে কেন্দ্রের বিশেষ ১০শতাংশ ছাড় সত্ত্বেও রাজ্য দাম কমায়নি, এমন উল্লেখ করেই পশ্চিমবঙ্গের দিকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছিল বিজেপি। রাজ্যসরকার তখন যে বক্তব্য রেখেছিল, এবার সেই বক্তব্যকেই সরাসরি রাখলেন কুনাল ঘোষ।


এই শনিবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, পেট্রলের নতুন দাম হবে ১০৫.৫০ টাকা/লিটার এবং ডিজেল ৯৩.১৯ পয়সা/লিটার। এই ঘোষণার পরেই কুনাল ঘোষ ট্যুইট করে লিখে জানান, “জ্বালানি: জনগণ ও বিরোধী দলের চাপের ফল। তাদের কর আরো কমাতে হবে। রাজ্যের সমান হতে হবে।”

জ্বালানির মূল্য কমাচ্ছে যারা তারাই মূল্য বাড়ানোর জন্য দায়ী সেই ইঙ্গিত ছুঁয়ে কুনাল বলেছেন, “যদি তারা হ্রাসের কৃতিত্ব দাবি করতে পারে তবে এটি প্রমাণ করে যে তারা বৃদ্ধির জন্য দায়ী।”
এরপর রাজ্যসরকারের পক্ষ অবলম্বন করে প্রায় চ্যালেঞ্জের ভঙ্গিতেই কুনাল ঘোষ বলেন, “দিল্লি যদি আমাদের বকেয়া পরিশোধ করে, তাহলে ৫ বছরের জন্য পশ্চিমবঙ্গে জ্বালানির ওপর কোনো ট্যাক্স থাকবে না।”

এভাবেই কেন্দ্রের দিকে সম্পূর্ণ দায় ঠেলে দিয়েছেন কুনাল ঘোষ। প্রসঙ্গত, শনিবারই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জ্বালিনির শুল্ক কমানো সম্পর্কে ঘোষণা  করেছেন। তারপরেই কুনালের এই ট্যুইট।

By Partha Roy Chowdhury (কিঞ্জল রায়চৌধুরী)

Partha Roy Chowdhury (Bengali: কিঞ্জল রায়চৌধুরী) is staff journalist VoiceBharat News. email: kinjol@voicebharat.com